মোদির শপথ অনুষ্ঠানে রহস্যময় প্রাণী, যা জানাল দিল্লি পুলিশ

ভারতের টানা তৃতীয়বারের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নরেন্দ্র মোদি রোববার শপথ গ্রহণ করেছেন। নয়াদিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনের আঙিনায় অনুষ্ঠিত এই জমকালো অনুষ্ঠানে দেশ-বিদেশের প্রায় আট হাজার অতিথি উপস্থিত ছিলেন। ছিলেন প্রতিবেশী কয়েকটি দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধান।স্বাভাবিকভাবেই অনুষ্ঠানটি ঘিরে নয়াদিল্লির নিরাপত্তাব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছিল। রাষ্ট্রপতি ভবনের আশপাশের একটি অঞ্চলকে উড়োজাহাজ উড্ডয়ন নিষিদ্ধ (নো ফ্লায়িং জোন) ঘোষণা করা হয়েছিল।কিন্তু সব নিরাপত্তাব্যবস্থাকে ফাঁকি দিয়ে মোদির শপথ অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিল এক অনাহূত ‘অতিথি’। এই আমন্ত্রণহীন অতিথি একটি প্রাণী। প্রাণীটির কয়েক সেকেন্ডের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

রহস্যময় ওই প্রাণীটি আসলে কী—চিতাবাঘ নাকি বিড়াল, তা নিয়ে বিভক্ত হয়ে পড়েন নেটিজেনরা। শেষ পর্যন্ত তাদের এই রহস্যের জাল ভেদ করতে বিবৃতি দিতে বাধ্য হয়েছে দিল্লি পুলিশ। ভিডিওটিতে দেখা যায়, অনুষ্ঠানে বিজেপির লোকসভার সদস্য দুর্গা দাস উইকে শপথ গ্রহণ শেষে রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুকে অভিবাদন জানাতে যাচ্ছিলেন। দৃশ্যটি ধারণ করার জন্য সঙ্গে সঙ্গে ক্যামেরাও সামান্য ওপরের দিকে তোলা হয়। ওই সময়ে তাঁদের পেছনে সামান্য দূরে বিড়ালের মতো প্রাণীটিকে দ্রুত এক পাশ থেকে অন্য পাশে চলে যেতে দেখা যায়।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারী লিখেছেন, ‘লামাও…(সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একধরনের উচ্ছ্বাস প্রকাশক শব্দ) এটা কি সম্পাদনা করা, না অন্য কিছু? এটা কীভাবে সবার চোখ ফাঁকি দিল! দেখে মনে হচ্ছে এটা একটা বড় বিড়াল।’

আরেকজন মন্তব্য করেন, ‘লেজ ও চলার ভঙ্গি দেখে এটাকে আমার নির্ঘাত চিতাবাঘ মনে হচ্ছে। প্রাণীটি শান্তভাবে পার হয়ে গেছে। তাই, সেখানে যাঁরা উপস্থিত ছিলেন, তাঁদের আসলেই ভাগ্যবান বলতে হয়।’তবে এই ঘটনার পরের দিন সোমবার এক এক্সবার্তায় দিল্লি পুলিশ জানিয়েছে, কয়েকটি মিডিয়া চ্যানেল এবং সামাজিক মাধ্যম হ্যান্ডেলে রোববার রাষ্ট্রপতি ভবনে অনুষ্ঠিত শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানের সরাসরি সম্প্রচারের সময় ধারণ করা একটি প্রাণীর ছবি দেখানো হচ্ছে। ওই প্রাণীটিকে কেউ কেউ বন্যপ্রাণি বলে দাবি করছে। তবে এসব তথ্য সত্য নয়। ক্যামেরায় বন্দি প্রাণীটি একটি সাধারণ পোষা বিড়াল। দয়া করে এই ধরনের গুজবে কান দেবেন না।

সূত্র: যুগান্তর

সর্বশেষ