উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী আসাদুজ্জামান আসাদ মোটর সাইকেল মার্কা নিয়ে ভোটে লড়ছেন, এলাকায় ব্যাপক গনযোয়ার

বশির আহম্মদ মোল্লা,নরসিংদী প্রতিনিধি: নরসিংদীর শিবপুরবাসীর ইচ্ছা ও ভালোবাসায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ। মোটর সাইকেল মার্কা শিবপুরের প্রতিটি এলাকায় ব্যাপক গনযোয়ার দেখাগেছে। ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তৃতীয় ধাপে আগামী ২৯ মে নরসিংদী শিবপুর ও রায়পুরা উপজেলায় ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। আসাদুজ্জামান আসাদ শিবপুর উপজেলায় একটি সুপরিচিত নাম তার সমগ্র জেলায় ব্যাপক পরিচিতি রয়েছে। তিনি শিবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর আদর্শ বুকে ধারন করে ছাত্র জীবনে আওয়ামী লীগ ঘটনার ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগের যোগ দেন। তিনি শিবপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্বসহ ছাত্রলীগের বিভিন্ন দায়িত্ব সফল ভাবে পালন করে গেছেন। ৯০’র স্বৈরাচার বিরোধী গণ আন্দোলনের শিবপুরের রাজপথের লড়াকু সৈনিক। ছাত্র জীবন থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত তার এই দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে তিনি বহুবার রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় বিভিন্ন মামলা হামলার শিকার হয়েছেন। রাজনীতির পাশাপাশি আসাদুজ্জামান আসাদ এলাকার বিভিন্ন সামাজিক ও সেবামূলক প্রতিষ্ঠানের সাথে সম্পৃক্ত রয়েছেন। আসাদুজ্জামান আসাদের উপজেলা বিভিন্ন এলাকায় বিশাল ভোটব্যাংক রয়েছে । শিবপুরের সর্বস্তরের জনগণ তাকে প্রকাশ্যে ও গোপনে সমর্থন দিয়েছেন। আসন্ন নির্বাচনে একটি দুর্নীতি,সন্ত্রাস মুক্ত স্মার্ট উপজেলা পরিষদ গঠন করার অঙ্গীকার করেন তিনি।
শিবপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়ে এলাকায় মোটর সাইকেল মার্কা সমর্থন আদায়ের জন্য দিন-রাত গণসংযোগ করে যাচ্ছেন আসাদুজ্জামান আসাদ। মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুড়ে ভোট প্রার্থনা করছেন তিনি । পাশাপাশি প্রতিদিন বিভিন্ন এলাকায় সমাবেশ ও উঠান বৈঠকে যোগ দিচ্ছেন তিনি। উপজেলার বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ, উঠান বৈঠককালে তিনি তার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা তুলে ধরে বলেন, স্বাস্থ্য সেবার মান উন্নয়ন ঘটিয়ে শিবপুরে একটি আধুনিক হাসপাতাল গড়ে তোলা হবে। রাস্তাঘাট ও ব্রিজ নির্মাণসহ যোগাযোগ ব্যবস্থার আরও উন্নয়ন করা হবে। প্রভাবশালীদের কূটকৌশলের কাছে ত্যাগী নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষকে দীর্ঘদিন ধরে খেসারত দিতে হচ্ছে। এ অবস্থা থেকে মুক্ত করাই আসাদুজ্জামান আসাদ এর মূল লক্ষ্য বলে জানান। দীর্ঘদিন ধরে শিবপুরে আওয়ামী রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত একজন সজ্জন ব্যক্তি হিসেবে উপজেলায় তার ব্যাপক গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে। জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে লালন করে দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী গরোনার রাজনীতিতে যুক্ত আছেন। বর্ণাঢ্য রাজনীতি ব্যক্তিত্বের অধিকারী আসাদুজ্জামান আসাদ। শিবপুর উপজেলার সাধারণ মানুষের মতামতের প্রাধান্য দিয়ে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়ে মতপ্রকাশ করেছেন। আসাদুজ্জামান আসাদ দীর্ঘদিন ধরে এলাকাবাসীর পাশে থেকে বিপদে আপদে তাদের পাশে থেকে সাহায্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন । শুধু অর্থ দিয়ে নয় মানুষের যে কোন বিপদে তাদের পাশে থেকেছেন। এলাকার মানুষের এতোটুকু সেবা করতে পারলেই যেন আত্মতৃপ্তি পান এই নেতা। এলাকার সাধারণ মানুষ যখন যেভাবে তাকে ডাক দিয়েছে তিনি তাদের ডাকে ছুটে গেছেন। ইতোমধ্যে এলাকার সাধারণ মানুষের অন্তরে স্থান করে নিয়েছে। এই মহানুভব রাজনীতিবিদ জনপ্রতিনিধি হলে তার সেবার পরিধি আরও বৃদ্ধি পাবে এমন চিন্তা ভাবনা শিবপুরের সাধারণ ভোটারদের ইচ্ছায় আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ নিয়ে তাদের রায় নিয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়ে উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন উন্নয়নে এলাকাবাসীকে সহযোগিতা করতে পারবে। তাই শিবপুরবাসীর ইচ্ছা ও ভালোবাসাকে প্রধান্য দিয়ে আসাদুজ্জামান আসাদ শিবপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মোটর সাইকেল মার্কা ভোটে লড়ছেন তিনি। শিবপুর উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে যতজন প্রার্থী হয়েছেন তাদের মধ্যে আসাদুজ্জামান আসাদ মোটর সাইকেল মার্কার আলোচিত হয়ে দিন দিন ভোটারদের সমর্থন আদায় করতে সক্ষম হয়েচ্ছে। এ নির্বাচনে মোটর সাইকেল মার্কা প্রতিটি এলাকায় সাধারন ভোটারদের মাঝে ব্যাপক গনযোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। উপজেলা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন, আমি দীর্ঘদিন রাজপথে থেকে সকল আন্দোলন সংগ্রামে লড়াই করেছি। বর্তমানে জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য ও শিবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে কাজ করে যাচ্ছি। আমি সাধ্যমত মানুষের পাশে থেকে সহযোগিতা করছি। এবারের উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে শিবপুরবাসী আমাকে চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চাচ্ছে। সবার ভালোবাসা ও দোয়া নিয়ে আমি নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছি। বিজয়ী হলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন অগ্রযাত্রা অব্যহত রাখতে কাজ করে যাবো।
প্রসঙ্গত, আসাদুজ্জামান আসাদ শিবপুর উপজেলার পৌর শহরের শিবপুর গ্রামের মৃত ইউসুফ আলী ছেলে। তিনি ১৯৮৬ সালে এসএসসি ও ১৯৮৮ সালে এইচএসসি এবং ১৯৯০ সালে বিএ পাশ করেন। আসাদুজ্জামান আসাদের স্ত্রী মোসাম্মত নাছরিন আক্তার বর্তমানে নরসিংদী মহিলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। এর আগে তিনি সফলতার জেলা আওয়ামী যুবলীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। উল্লেখ্য, তৃতীয় ধাপের তফসিল অনুযায়ী, আগামী ২৯ মে নরসিংদী শিবপুর ও রায়পুরা সহ দেশের ১২২ উপজেলায় ভোট অনুষ্ঠিত হবে। ইতিমধ্যে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই সম্পূর্ণ করেছে নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা রির্টানিং কর্মকর্তা। #

সর্বশেষ