ভৈরবে মিথ্যা মামলা ও হয়রানির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

এম.আর ওয়াসিম ভৈরব কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে মিথ্যা মামলায় আসামী করে হয়রানি করার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
আজ মঙ্গলবার দুপুরে ভৈরব বাজারস্থ ভেনিস বাংলায় ওই সংবাদ সম্মেলন করেন ভুক্তভোগী পরিবার।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তৌহিদুজ্জামান বলেন, তানজিনা আত্মহত্যার ঘটনাটিকে ভিন্নখাতে প্রভাবিত করে হত্যা মামলা দায়ের করে মিথ্যা আসামি করায় আমার বৃদ্ধ বাবা ও দুই ভাই বিনা অপরাধে জেলে গেছেন।
আমার ভাইয়ের নাবালক শিশুকে বানোয়াট ও মিথ্যা কথা শিখিয়ে ভিডিও বক্তব্য ধারণ করে সোসাল মিডিয়ায় প্রচার করে ঘটনাটি ভিন্নখাতে প্রভাবিত করে সামাজিক ও মানুষিক ভাবে হয়রানি করছে এবং ভৈরববাসীকেও বিভ্রান্ত করছে একটি মহল।
তিনি বলেন, তানজিনা ভাবির মৃত্যুর আগে হাসপাতালে চিকিৎসা করিয়ে ভাইয়ার ফার্মেসিতে যান এবং ভাইয়াকে নিয়ে বাসায় ফিরেন। বাসায় এসে স্বামীর সাথে রাগারাগি ও কথা কাটাকাটি করে বাবার বাড়ি চলে যেতে যাওয়ার সময় অসাবধান বসত তিন তলা থেকে নিচে পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাত পেয়ে গুরুতর আহত হয়।
এসময় বিকট শব্দ শুনে চার তলা থেকে এসে দেখি ভাবী নিচে পড়ে আছে। তখন পরিবারের লোকজনকে নিয়ে ভাবীকে আনোয়ারা হাসপাতালে আনি এবং এখান থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন। এলাকার লোকজন তখন হাসপাতালে বাবা ও ভাইদের প্রহার করে পুলিশের হেফাজতে দেন। পরে তারা মিথ্যা ঘটনা সাজিয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেন।
তিনি আরো বলেন, তার ভাবী মানষিক রোগী ছিলেন, তাই তাকে বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন ডাক্তারের কাছে চিকিৎসা করান। সে মানষিক রোগী হওয়ায় অনেক সময় স্বাভাবিক আচরণ করতে সমস্যা হতো। আর তখনই বিভিন্ন ধরনের ঘটনা ঘটিয়ে ফেলতো।
আমি চাই সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে সত্য ঘটনা বেরিয়ে আসুক। যদি আমরা দোষী হয় অবশ্যই বিচার হবে।
এসময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক যুগান্তরে ভৈরব প্রতিনিধি আসাদুজ্জামান ফারুক, গ্লোবাল টিভির ভৈরব প্রতিনিধি জয়নাল আবেদীন রিটন, মোহনা টিভির ভৈরব প্রতিনিধি জামাল আহমেদ, দৈনিক নয়া শতাব্দীর ভৈরব প্রতিনিধি এম আর রুবেল, আরটিভির ভৈরব প্রতিনিধি আল আমিন টিটু, সাপ্তাহিক অবলম্বন পত্রিকার যুগ্ম সম্পাদক জ.ই পরশ, বার্তা সম্পাদক শামীম আহমেদ, আনন্দ টিভির ভৈরব প্রতিনিধি আরিফুল ইসলাম মামুন, মাই টিভির ভৈরব প্রতিনিধি শাহনূর, ৭১ বাংলা টিভির ভৈরব প্রতিনিধি মিজান পাটোয়ারী, আমাদের নতুন সময় প্রতিনিধি ইমন প্রমুখ।

সর্বশেষ