গুরুজির ভবিষৎবাণী সত্যি হবে সামান্থার জীবনে?

 

বলা হচ্ছে, এই অভিনেত্রীর গুরু জগদীশ বাসুদেব তাকে পরামর্শ দিয়েছেন বিয়ে করার; সেই পরামর্শ তিনি গুরুত্বের সঙ্গেই নিয়েছেন।

দক্ষিণ ভারতের নায়িকা সামান্থা রুথ প্রভুকে ঘিরে তার নতুন সিনেমা ‘শকুন্তলম ও যশোদা’ নিয়েই শুধু আলোচনা হচ্ছে না; নাগা চৈতন্যকে বিদায় জানিয়ে বিয়ের বিষয়ে সামান্থার নতুন কোনো ‘চৈতন্য’ হল কি না, সেই প্রশ্নও ভাসছে।

সেলিব্রেটি চ্যাট শো ‘কফি উইথ করণে’ এসে সামান্থা অবশ্য বলেছিলেন, তিনি প্রেম নিয়ে সহসা ভাবছেন না, হৃদয়ের দরজা আপতত বন্ধ। কিছুদিন আগেই যে নাগা চৈতন্যের সঙ্গে দাম্পত্যের অবসান ঘটিয়েছেন তিনি।

কিন্তু বলিউড লাইফ ডটকম বলছে, নতুন করে সামান্থার ঘর বাঁধার জোর গুঞ্জন চলছে।

বলা হচ্ছে, এই অভিনেত্রীর সাধুগুরু জগদীশ বাসুদেব তাকে বিয়ে করার পরামর্শ দিয়েছেন। আর সেই পরামর্শ তিনি গুরুত্বের সঙ্গেই নিয়েছেন।

গুরু যা বলেন তা বরাবরই শুনে এসেছেন সামান্থা। এর আগে গুরু বলেছিলেন, ‘বৃহস্পতি’ সহায় হবে সামান্থার। কিছুদিন পরই তার বিয়ে হয়েছিল।

এবারও কি তাই ঘটতে যাচ্ছে? এই খবরে সামাস্থার কোনো প্রতিক্রিয়া জানা যায়নি।

বিয়ের এই গুঞ্জন জোরালো হয়েছে সোশাল মিডিয়ায় নীরবতা। বেশ কিছুদিন ধরে বেপাত্তা এই নায়িকা।

এই নায়িকার ম্যানেজার মহেন্দ্র অবশ্য আনন্দবাজারকে বলেছেন, সামান্থা এখন চিকিৎসার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে আছেন।

<div class="paragraphs"><p>নাগা চৈতন্য ও সামান্থা রুথ প্রভুর বিচ্ছেদের খবর আসে ২০২১ সালে</p></div>

নাগা চৈতন্য ও সামান্থা রুথ প্রভুর বিচ্ছেদের খবর আসে ২০২১ সালে

২০১০ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত তেলেগু ইন্ডাস্ট্রির ‘ইয়ে মায়ে চেসাভ’ চলচ্চিত্রে প্রথমবারের মত ‍জুটি বেঁধে পর্দায় হাজির হন নাগা-সামান্থা। সিনেমায় একসঙ্গে কাজ করতে গিয়েই তাদের সম্পর্ক প্রণয়ের রূপ নেয়।

২০১৭ সালে বিয়ে করেন তেলেগু ও তামিল চলচ্চিত্রের আলোচিত এই জুটি। দক্ষিণ ভারতের মেগাস্টার নাগার্জুনের ছেলে নাগা চৈতন্যের পরিবারের পদবি ‘আক্কেনেনি’ যুক্ত করে চলচ্চিত্রে সামান্থা আক্কেনেনি হিসেবেও পরিচিতি পান এ নায়িকা।

বিয়ের চার বছরের মাথায় ২০২১ সালে বিচ্ছেদের খবর দেন তারা নিজেরাই। দাম্পত্যজীবনের ইতি ঘটলেও দুজনের এক দশকের বন্ধুত্ব অটুট থাকবে বলে সে সময় জানিয়েছিলেন নাগা-সামান্থা।

তেলেগু চলচ্চিত্র ‘পুষ্পা: দ্য রাইজ’ এর একটি আইটেম গানে এসে সর্বভারতে নাম কুড়ানো সামান্থা ‘দ্য ফ্যামিলি ম্যান ২’ ওয়েব সিরিজ দিয়ে বলিউডে যাত্রা শুরু করেছেন। ২০১০ সাল থেকে তামিল ও তেলেগু সিনেমায় সক্রিয় এই অভিনেত্রী ফিল্ম ফেয়ার পুরস্কার পেয়েছেন চারবার।

সামান্থাকে আগামীতে মিথলজিক্যাল ড্রামা শকুন্তলম ও যশোদায় দেখা যাবে। তার আরেকটি সিনেমা ‘খুশি’ মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে, সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন শিব নির্বান।

এছাড়া অমর কৌশিকের হরর সিনেমায় তিনি যুগলবন্দি হতে যাচ্ছেন আয়ুষ্মান খুরানার সঙ্গে। সেখানে আয়ুষ্মান ভ্যাম্পায়ারের চরিত্রে আর্বিভূত হবেন, আর সামান্থা হবেন এক রাজকুমারী।

সর্বশেষ