Sunday, September 25, 2022
Homeবিভাগীয় খবরদেশব্যাপি বিএনপির নৈরাজ্য ও মিথ্যাচারের প্রতিবাদে ভৈরবে আওয়ামীলীগের বিক্ষোভ সমাবেশ

দেশব্যাপি বিএনপির নৈরাজ্য ও মিথ্যাচারের প্রতিবাদে ভৈরবে আওয়ামীলীগের বিক্ষোভ সমাবেশ

এম আর ওয়াসিম, ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ

দেশব্যাপি বিএনপির নৈরাজ্য ও মিথ্যাচারের প্রতিবাদে ভৈরবে ভৈরব পৌর আওয়ামীলীগ ও উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে বিশাল বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়। সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি ও ভৈরব -কুলিয়ারচর- ৬ আসনের মাননীয় সাংসদ আলহাজ্ব নাজমুল হাসান পাপন।

উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মোঃ সায়দুল্লাহ মিয়ার সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সেন্টু, কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদের সাবেক প্যানেল মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মোঃ মির্জা মোঃ সোলমান, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি এস এম বাক্কি বিল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক আতিক আহমেদ সৌরভ, পৌর মেয়র ইফতেখার হোসেন বেনু, প্রয়াত রাষ্ট্রপতি আলহাজ্ব জিল্লুর রহমানেরএপিএস লুৎফর রহমান ফুলু এপিএস সাখাওয়াত হোসেন মোল্লা প্রমুখ।
গতকাল ২০ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার বিকালে ভৈরব বাসস্ট্যান্ডের নিউটাউন মোড়ে বিক্ষোভ সমাবেশটি অনুষ্ঠিত হয়। সফর সঙ্গী হিসেবে নাজমুল হাসান পাপন এর সহধর্মিণী রোকসানা হাসান উপস্থিত ছিলেন।
সমাবেশে বিভিন্ন ইউনিয়ন ও শহরের প্রতিটি ওয়ার্ড থেকে দলীয় নেতা-কর্মীরা খন্ড খন্ড মিছিল নিয়ে সমাবেশে যোগ দেয়। তাছাড়া দলীয় নেতা-কর্মীদের স্লোগানে সমাবেশ মুখরিত করে তুলে। এসময় প্রধান অতিথি নাজমুল হাসান পাপন বলেন, বিএনপি এখনও পাকিস্তানকে ভালবাসে। পাকিস্তানই তাদের কাছে ভাল ছিল, বলেছেন ফখরুল। তিনি আরো বলেন এদেশে থাকতে হলে স্বাধীনতাকে মেনে চলতে হবে। সরকারের উন্নয়ন দেখে বিএনপির মাথা খারাপ হয়ে দেশে সন্ত্রাস, নৈরাজ্য ও মিথ্যাচার করছে।

তারা ৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করে, একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় আইভি রহমানসহ ২৪ জনকে হত্যা করে, কিবরিয়া, আহসানউল্লা মাস্টারকে হত্যা করে। তারা বলে আওয়ামী লীগ সরকার মানবধিকার লঙ্গন করছে। মানবধিকার সংগঠনগুলির প্রতি প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন বঙ্গবন্ধুকে হত্যার সময় মানবাধিকারবাধিরা কোথায় ছিলেন। শেখ হাসিনারপদ্মা সেতু নির্মাণের পর তারা চোখে অন্ধকার দেখছে। আগামী নির্বাচনে বিএনপি অংশ নিলে তাদের ধানের শীষ পানিতে তলিয়ে যাবে ভেবে তারা এখন আবোল তাবোল কথা বলছে। পাপন বলেন, জিয়া বন্দুকের নলের মুখে প্রেসিডেন্ট সায়েমকে ক্ষমতাচ্যুত করে হাঁ না ভোট দিয়ে জোর করে ক্ষমতায় বসে। স্বাধীনতা বিরোধী শাহ আজিজকে জিয়া এদেশের প্রধানমন্ত্রী বানিয়ে রাজাকারদের পূর্নবাসিত করে। বঙ্গবন্ধুর হত্যার পর ইনডেমনিটি আইন করে হত্যার বিচার বন্ধ করে দেয়। পরে খুনীদের বিভিন্ন দূতাবাসে চাকরি দিয়ে পূর্নবাসিত করে। আগামী সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে তিনি ভৈরববাসীসহ দেশবাসীকে সতর্ক থাকার আহবান করেন।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular