Sunday, September 25, 2022
Homeবিনোদনমাত্র ২৯ বছরে চলে গেলেন অভিনেত্রী

মাত্র ২৯ বছরে চলে গেলেন অভিনেত্রী

 

কলকাতার বিনোদন ইন্ডাস্ট্রিতে একের পর এক অভিনেত্রীদের মৃত্যুর খবর। অস্বাভাবিক মৃত্যুর হার ক্রমেই বেড়ে গেছে ভারতীয় বিনোদন অঙ্গনে। সেটা তামিলই হোক, তেলেগু, হিন্দি, বাংলা সবখানেই। শুরু হয়েছিল বলিউডের সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু থেকে।

এরপর সেই যে চলছে, থামছেই না। 

দক্ষিণী আরেক অভিনেত্রীর আত্মহননের খবর জানাল সেখানকার গণমাধ্যম। ভালোবাসার জন্য সব কিছু ত্যাগ করা যায়। নিজের জীবনকেও। সেটি আরেকবার প্রমাণ করলেন জনপ্রিয় দক্ষিণী অভিনেত্রী পলিন জেসিকা ওরফে দীপা।

সুইসাইড নোট লিখে নিজের ঘরেই গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করলেন দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় অভিনেত্রী। প্রেমিকের নাম উল্লেখ না করলেও লিখে রেখে গেলেন চিরকাল ভালোবেসে যাবেন তিনি তাঁকে। সবেমাত্র ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল তাঁর।

তাঁর অভিনয়ও দারুণ প্রশংসা পাচ্ছিল। এর মধ্যেই সব শেষ করে দিয়ে চলে গেলেন। অভিনয়ের জোরে ইন্ডাস্ট্রিতে নিজের জায়গা তৈরি করছিলেন দীপা। জানা গেছে, চেন্নাইয়ে বিরুগমবক্কমের তাঁর নিজের বাড়ি থেকেই ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয় দীপাকে।

সম্প্রতি ‘বৈধা’ নামে একটি ছবিতে অভিনয় করে দারুণ প্রশংসা পেয়েছিলেন তিনি। তাঁর বয়স মাত্র ২৯ বছর। পুলিশের প্রাথমিক তদন্ত অনুযায়ী, কোনো রহস্যজনক মৃত্যু নয়। গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, প্রেম সম্পর্কিত সমস্যার কারণে মানসিকভাবে কয়েক দিন ধরে ভেঙে পড়েছিলেন তিনি, সে কারণে চেন্নাইয়ের মাল্লিকাই এভিনিউয়ে তাঁর বাড়িতে বেশ কয়েক দিন ধরে একা থাকছিলেন দীপা। আর এই মানসিক যন্ত্রণা থেকেই তিনি আত্মহত্যার পথ বেছে নেন।

দীপার মৃতদেহের পাশেই একটি সুইসাইড নোট পাওয়া গেছে। সেখানেই তিনি তাঁর মৃত্যুর কারণ লিখে গেছেন তিনি। দক্ষিণের বেশ কিছু ছবিতে অভিনয় করেছিলেন তিনি এবং প্রশংসাও পেয়েছেন।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular