Sunday, September 25, 2022
Homeরাজনীতিঢাকায় বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতি আমলাদের হাতে : খসরু

ঢাকায় বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতি আমলাদের হাতে : খসরু

 

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, আওয়ামী লীগের এখন কোনো জনসমর্থন নেই। কারণ দলটি জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। দলটির রাজনীতি আজকে সরকারি আমলাদের হাতে চলে গেছে। রাজনীতিবিদদের বাদ দিয়ে আওয়ামী লীগ সরকারি আমলাদের হাতে তাদের দলের নেতৃত্ব তুলে দিচ্ছে। সে কারণে তারা বিএনপিকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করার সাহস হারিয়ে ফেলেছে। বিএনপিকে মোকাবিলায় দখলবাজ, টেন্ডারবাজ, লুটপাটকারী, আমলা, পুলিশ মাঠে নামাচ্ছে। যারা আওয়ামী লীগের রাজত্বে পকেট ভর্তি করেছে। তারাই হচ্ছে এখন আওয়ামী লীগের একমাত্র সমর্থক। এ ছাড়া তাদের কোনো সমর্থক নেই। কিন্তু এদের দিয়েও আর এই সরকারের শেষ রক্ষা হবে না। আমরা এই সরকার পতনে যে কোনো ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত আছি। গতকাল বিকালে রাজধানীর মহাখালীর গাউসুল আজম জামে মসজিদ সংলগ্ন মাঠে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্ততায় তিনি এসব কথা বলেন। ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির গুলশান জোনের উদ্যোগে এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়। ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমানউল্লাহ আমানের সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব আমিনুল হকের পরিচালনায় মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক আবদুস সালাম, বিএনপি নেতা নাজিম উদ্দিন আলম, কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীম, সরাফত আলী সপু, মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, সুলতানা আহমেদ, তাবিথ আউয়াল, কাজী রওনাকুল ইসলাম টিপু, সাইফুল আলম নিরব, ছাত্রদলের সাইফ মাহমুদ জুয়েলসহ মহানগর বিএনপির নেতারা বক্তব্য রাখেন।

আমীর খসরু বলেন, ‘পুলিশের একটি অংশ আওয়ামী লীগের নেতা হয়ে গেছেন বা নেতা হওয়ার চেষ্টা করছেন। তারা এই পথে যাওয়ার চেষ্টা করবে। আমি আগেও বলেছি, এখনো বলছি আপনারা এই পথে যাবেন না। এটা আপনাদের জন্য ভালো হবে না, বাংলাদেশের জন্য ভালো হবে না, জনগণের জন্যও ভালো হবে না।’

আমীর খসরু চৌধুরী বলেন, বিএনপির আন্দোলন প্রতিরোধ করবে- বাংলাদেশে এমন কোনো শক্তি নেই। আজকে বিএনপি যে আন্দোলন করছে, সেটা শুধু বিএনপির একার আন্দোলন নয়। চলমান আন্দোলন ১৮ কোটি মানুষের বাংলাদেশের আত্মাকে ফিরিয়ে আনার আন্দোলন। তিনি বলেন, আগামী দিনে বাংলাদেশ কোন পথে যাবে সে ফয়সালা হবে রাজপথে। তার জন্যই আন্দোলন। মানুষের ধৈর্যের বাঁধ ভেঙে গেছে, দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে বলেই রাস্তায় নেমে এসেছে। এই ফ্যাসিস্ট সরকারের পতন না ঘটিয়ে কেউ আমরা রাস্তা ছাড়ব না। আমরা সরকার পতনে যে কোনো ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত আছি। দলের স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, ‘মানুষ সিদ্ধান্ত নিয়ে রাস্তায় নেমেছে, রাস্তা থেকে কেউ ফিরে যাবে না। আমরা কেউ ফিরে যাব না। আমরা সবাই রাস্তায় থাকব, তাদের পরাজিত করব। তাই এই ফ্যাসিস্ট সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত আমাদের রাস্তায় থাকতে হবে। তাবিথ আউয়ালের হাত ভেঙেছে, মাথা ফেটেছে। তারপরও তিনি রাজনীতির মাঠে ফিরে এসেছেন। উনি তো ঘরে বসে থাকতে পারতেন, কিন্তু ফিরে এসেছেন। আমাদের সবাইকে এভাবে যুদ্ধক্ষেত্রে অব্যাহতভাবে রাস্তায় থাকতে হবে। বাংলাদেশের কোনো শক্তি নেই আমাদের প্রতিরোধ করতে পারবে। 

হাতেমাথায় ব্যান্ডেজ নিয়ে সমাবেশে তাবিথ আউয়াল : হাতে ও মাথায় ব্যান্ডেজ নিয়ে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে সমাবেশে যোগ দেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের সদস্য তাবিথ আউয়াল। এ সময় তাকে দেখে নেতা-কর্মীরা উজ্জীবিত হন এবং মুহুর্মুহু স্লোগান দেন। বেলা ৩টায় সমাবেশ শুরু হওয়ার পর সাড়ে ৩টার দিকে যোগ দেন তাবিথ আউয়াল। এর আগে গত ১৭ সেপ্টেম্বর রাজধানীর বনানীতে বিএনপির মোমবাতি প্রজ্বলন কর্মসূচিতে আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের হামলায় মাথায় গুরুতর আঘাত পান তাবিথ আউয়াল। পরে তাকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular