Thursday, August 11, 2022
Homeজাতীয়বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উদযাপিত

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উদযাপিত

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উদযাপিত

 

নিউইয়র্কে বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল-এ ‘পদ্মা সেতু’র উদ্বোধন উদযাপন

 

 

নিউইয়র্ক, ২৫ জুন ২০২২ :

 

‘পদ্মা সেতু’র উদ্বোধনের ঐতিহাসিক মুহূর্ত যথাযথভাবে উদযাপনের জন্য আজ নিউইয়র্কে বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। নিউইয়র্কে বসবাসকারী বীর মুক্তযোদ্ধা, রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, মিডিয়া নেতৃবৃন্দ ও কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গসহ প্রবাসী বাংলাদেশিরা অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে। উপস্থিত সকলে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক পদ্মা সেতু’র উদ্বোধন অনুষ্ঠানের সরাসরি সম্প্রচার উপভোগ করে।

কনসাল জেনারেল ড. মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম পদ্মা সেতুকে আত্মবিশ্বাস ও প্রেরণার প্রতীক হিসাবে আখ্যায়িত করে বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সাহসী ও দূরদর্শী নেতৃত্বে নিজেদের অর্থায়নে পদ্মা সেতুর বাস্তবায়ন জাতি হিসেবে আমাদের এক অনন্য অর্জন, যা শুধুমাত্র আমাদের অর্থনৈতিক সক্ষমতার পরিচয়ই বহন করে না, তা আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি আরও উজ্জ্বল করেছে। রাজধানীর সঙ্গে দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলোর নিরবচ্ছিন্ন যোগাযোগ স্থাপিত হওয়ায় এ অঞ্চলের বহুমুখী উন্নয়নে এ সেতুর গুরুত্ব অপরিসীম। ব্যবসা-বাণিজ্য, শিল্পায়ন ও পর্যটন শিল্পে  অগ্রগতিসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে এ সকল জেলার উন্নয়নের জন্য  নতুন দ্বার উন্মোচিত করার পাশাপাশি দেশের সামগ্রিক উন্নয়নে পদ্মা সেতু অগ্রণী ভূমিকা রাখবে বলে তিনি উল্লেখ করেন। বিশ্বের অন্যান্য দেশের সাথে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্প্রসারণে এ সেতু ইতিবাচক অবদান রাখবে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

 

 

 

ইতালিস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসে পদ্মা সেতু উদ্বোধনের ঐতিহাসিক মুহূর্ত উদ্‌যাপন

 

ইতালি, ২৫ জুন ২০২২ :

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক আজ পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষ্যে জাতীয় পর্যায়ে আয়োজিত বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের সাথে সঙ্গতি রেখে বাংলাদেশ দূতাবাস, রোম প্রাঙ্গণে এক বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। উৎসবমুখর ও আনন্দঘন এ অনুষ্ঠানে ইতালিতে বসবাসরত প্রবাসী বীর মুক্তিযোদ্ধা, বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, নারী নেতৃবৃন্দ, মিডিয়াকর্মীসহ দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করেন।

 

বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোঃ শামীম আহসান স্বাগত বক্তব্যে বলেন, পদ্মা সেতু বাংলাদেশের গর্ব, আত্মনির্ভরশীলতা ও  আত্মমর্যাদার প্রতীক। বাঙালি জাতির এ গৌরবোজ্জ্বল ঐতিহাসিক দিনে তিনি স্বাধীন বাংলাদেশ রাষ্ট্রের স্থপতি, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি বিশেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। রাষ্ট্রদূত বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সাহসিকতা, বলিষ্ঠ সিদ্ধান্ত ও যুগোপযোগী পদক্ষেপের ফলেই সম্পূর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে প্রমত্তা পদ্মার বুকে এই সেতু নির্মাণ সম্ভব হয়েছে। অসংখ্য প্রতিকূলতা ও চক্রান্ত পরাভূত করে বাঙালির স্বপ্ন পূরণের এ দিনে এ সেতু নির্মাণের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে অভিনন্দিত করে তিনি বলেন, সরকার ও জনগণের একনিষ্ঠ প্রচেষ্টার ফলে এই সেতু নির্মাণের মাধ্যমে বিশ্বদরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়ানোর সুযোগ হয়েছে।

 

অনুষ্ঠানে জাতির এ মাহেন্দ্রক্ষণ উপলক্ষ্যে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী প্রদত্ত বাণী পাঠ করা হয় এবং পদ্মা সেতুর ওপর নির্মিত বিশেষ প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। উপস্থিত সকলে বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সরাসরি সম্প্রচার উপভোগ করেন। অনুষ্ঠান শেষে পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষ্যে নির্মিত গান (থিম সং) এক উৎসবের আমেজ তৈরি করে। এ গৌরবময় মুহূর্তে দূতাবাসের পক্ষ থেকে সকলকে আপ্যায়ন ও মিষ্টিমুখ করানো হয়।

 

 

 

 

 

ইসলামাবাদে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক পদ্মা সেতুর সরাসরি উদ্বোধন অনুষ্ঠান উদ্‌যাপন

 

ইসলামাবাদ, ২৫ জুন  ২০২২ :

 

বাংলাদেশ হাইকমিশন, ইসলামাবাদ যথাযথ উৎসাহ ও উদ্দীপনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক বাঙালির স্বপ্নের পদ্মা বহুমুখী সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সরাসরি পালন করেছে। এ উপলক্ষ্যে দূতালয় প্রাঙ্গণ বর্ণাঢ্য ব্যানার ও পোস্টারে সুসজ্জিত করা হয়। আমন্ত্রিত অতিথিসহ হাইকমিশনের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ এ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন। এরপর পদ্মা সেতুর উদ্বোধনের লাইভ স্ট্রিমিং এ সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী ও অতিথিবৃন্দ পরিবারে যুক্ত হয়ে অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।

 

লাইভ স্ট্রিমিং শেষে পাকিস্তানে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার রুহুল আলম সিদ্দিকী তাঁর বক্তৃতায় বলেন, বাংলাদেশের আত্মনির্ভরশীল ও আত্মমর্যাদার প্রতীক পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক উদ্বোধনে আমরা সবাই অত্যন্ত আনন্দিত। পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নের নিয়োজিত সকল দেশি-বিদেশি প্রকৌশলী, পরামর্শক, কর্মকর্তা-কর্মচারী, নিরাপত্তা তদারকিতে নিয়োজিত সেনাবাহিনী ও নির্মাণ শ্রমিকসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে অক্লান্ত পরিশ্রমের জন্য অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞতা জানান। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ নিজস্ব অর্থায়নের সেতু নির্মাণের ঘোষণা দেশের জনগণের কাছে বিপুল সমর্থন পেয়েছিল। প্রধানমন্ত্রীর সাহসিকতা, বলিষ্ঠ পদক্ষেপ ও যুগোপযোগী সিদ্ধান্ত এবং জনগণের শক্তি হৃদয়ে ধারণ করে বাংলাদেশ সরকারের সম্পূর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে স্বপ্নের পদ্মা সেতু নির্মাণ সম্পন্ন হয়েছে। আগামী দিনে গণমানুষের আশা-আকাঙ্ক্ষা ও স্বপ্ন পূরণে সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় শোষণহীন, বঞ্চনাহীন, সমৃদ্ধ ও জ্ঞাননির্ভর জাতির পিতার স্বপ্নের ‘সোনার বাংলাদেশ’ গড়ে তুলতে বর্তমান সরকার সক্ষম হবে।

 

আলোচনা শেষে পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণ প্রকল্পের ওপর নির্মিত একটি ভিডিওচিত্র প্রদর্শিত হয়। এসময় হাইকমিশনার উপস্থিত সকলকে নিয়ে পদ্মা বহুমুখী সেতু উদ্বোধন উপলক্ষ্যে কেক কাটেন। সবশেষে জাতির পিতার আত্মার মাগফিরাত এবং দেশ ও জাতির সমৃদ্ধি, অগ্রগতি ও কল্যাণ কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular