বঙ্গবন্ধু সারা জীবন সত্য ও সুন্দরের জয়গান গেয়েছেন: ড. কলিমউল্লাহ

0
42

মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষ্যে জানিপপ কর্তৃক আয়োজিত বর্ষকালব্যপী জুম ওয়েবিনারে আলোচনা সভার ১২২তম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।
জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ডক্টর মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে কলকাতা থেকে সংযুক্ত ছিলেন ভারতের টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব ও কলামিস্ট পিনাকী ভট্টাচার্য এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন রংপুর মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোসাঃ আর্জিনা খানম।
সভায় গেস্ট অব অনার হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন ইউএন ডিজএ্যাবিলিটি রাইটস্ চ্যাম্পিয়ন আবদুস সাত্তার দুলাল এবং মুখ্য আলোচক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন শিক্ষা ক্যাডারের সহযোগী অধ্যাপক মোঃ আবু সালেক খান।
সভাপতির বক্তৃতায় ড. কলিমউল্লাহ বলেন,বঙ্গবন্ধু সারা জীবন সত্য ও সুন্দরের জয়গান গেয়েছেন।
প্রধান অতিথির বক্তৃতায় পিনাকী ভট্টাচার্য বলেন, বঙ্গবন্ধু শুধু বাংলাদেশের বঙ্গবন্ধু না, তিনি এপার বাংলারও বঙ্গবন্ধু।বঙ্গবন্ধু এপার বাংলায়ও সমানভাবে সমাদৃত এবং শ্রদ্ধেয় ব্যক্তিত্ব।বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন “বাংলার মানুষ মুক্তি চায়, বাংলার মানুষ বাঁচতে চায়।” মানুষের দুঃখ দূর্দশার কথা বঙ্গবন্ধু অন্তঃকরণে অনুধাবন করেই এই সাহসী উচ্চারণ করেছিলেন এবং বাংলার মানুষের মুক্তি এনে দিয়েছিলেন বলে তিনি উল্লেখ করেন।

ডক্টর আবির, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে জানিপপ’র গবেষণামূলক সান্ধ্যকালীন এই আলোচনা দেশের আনাচে-কানাচে ছড়িয়ে দেওয়ার আহ্বান জানান।
আরজিনা খানম বলেন, বঙ্গবন্ধু শোষণমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠায় আজীবন সংগ্রাম করেছেন ।আমাদেরকেও বঙ্গবন্ধুর পথ অনুসরণ করে রাজনীতি করতে হবে।

গবেষক সালেক খান বলেন,বঙ্গবন্ধুর প্রতিটি ভাষণ ছিল বাঁশির সুরের মতো যা বাঙালির মরমে ঝংকার তুলতো সেই ঝংকার বাঙালি জাতিকে মুক্তিযুদ্ধ করতে অনুপ্রাণিত করেছিল ।

আব্দুস সাত্তার দুলাল বলেন,বঙ্গবন্ধু কারো ভাষণ,ভাষা কিংবা আচরণ পৃথিবীর কোন ব্যক্তি বা নেতাকে অনুকরণ ও অনুসরণ করে করেননি। তিনি এক অনন্য স্বকীয় বৈশিষ্ট্যে মহিমান্বিত।
দিপু সিদ্দিকী বলেন,জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু জীবনের সুখ-স্বাচ্ছন্দ্য উপেক্ষা করে মানবজাতিগুলোর কল্যাণে ডুবে থাকতেন সারাক্ষণ। যার বজ্রমন্ত্রে দীক্ষিত হয়ে একটি জাতি মুক্তি সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়ে।গড়ে তুলতে সক্ষম হয় সার্বভৌম স্বাধীন বাংলাদেশ। কাজেই তার দর্শন ও আদর্শ আত্মস্থ করতে না পারলে রোমান সাম্রাজ্যের পরিণতি বহন করতে হবে।
আলোচনা সভায় সূচনা বক্তব্য প্রদান করেন দিনাজপুর বীরগঞ্জ উপজেলার ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মুর্শিদ অর্ণব।
সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য উপস্থাপন করেন,রয়েল ইউনিভার্সিটি অব ঢাকা এর সহযোগী অধ্যাপক, বিভাগীয় প্রধান ও ডেইলি প্রেসওয়াচ সম্পাদক দিপু সিদ্দিকী,ওয়েস্টার্ন সিডনি ইউনিভার্সিটি, অস্ট্রেলিয়া থেকে ড. তানভীর ফিত্তীণ আবীর,পঞ্চগড় থেকে খাদেমুল ইসলাম,পিএইচডি গবেষক ফাতেমা লিমা।

এছাড়াও আলোচনায় অন্যান্যদের মধ্যে সংযুক্ত ছিলেন,যশোর থেকে নাজমুল হক এবং সোনালী ব্যাংকের কর্মকর্তা ইএন রুমা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here