নরসিংদীর ক্ষুদে বিজ্ঞানী সোহানের বিমান উড়ছে আকাশে

0
55

এক অবিশ্বাস্য ঘটনা । মাত্র ৮ম শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করা সোহান কোনো দিন বিজ্ঞান গবেষণাগারেও যাওয়া হয়নি তার। শুধু নিজের চেষ্টায় বানিয়ে ফেলেছেন কার্গো বিমান। ২৫ অক্টোবর ২০২১ তারিখে জয়নগর হাজী আফসার উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে শতশত মানুষ ও মিডিয়ার সামনে বিমান আকাশে উড়িয়ে দেখান।

ইতোমধ্যে সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে এ বিষয়টি। এটি বিমানটি তৈরী করেছেন নরসিংদী জেলার শিবপুর উপজেলার চৈতন্যা গ্রামের মোকতার হোসেনের ছেলে সোহানুর রহমান সোহান। ২২ বছরের তরুণ বিজ্ঞানী সোহান। তার নিজের হাতে তৈরী কার্গো ১৫/২০ মিনিট আকাশে উড়ে।

চৈতন্যা গ্রামের মোক্তার হোসেনের বড় ছেলে মো: সোহান। বর্তমানে তার বয়স ২২। ২০১৯ সাল থেকে শুরু করেন বিমান তৈরির কাজ। সে থেকে শুধুমাত্র নিজের চেষ্টায় প্রথম তৈরী করেন কার্গো বিমান । ২০২১ সালের প্রথম দিকে প্রথম আকাশে উড়ান। এরপর থেমে নেই সোহানের গবেষণা। প্রাইমারি স্কুল থেকে ইলেকট্রিক কাজ করতে শুরু করে। ৯ম শ্রেণিতে পড়াশোনা করার সময় পরিবারে দুর্যোগ নেমে আসে। ফলে পড়াশোনা ছেড়ে মা ও ছোট দুই ভাইয়ের দায়িত্ব নিতে হয় তাকে । বিভিন্ন জায়গায় ছোটখাট কাজ করেন। কিছু টাকা ম্যানেজ করে বাবার ঋণ পরিশোধ করে। তারপর জয়নগর দক্ষিণ পাড়া ফুফা মো. ফজলুর রহমানের বাড়িতে চলে যান।
প্রায় ৫ বছর ধরে এখানেই থাকেন। সে তার ফুফাতো ভাইয়ের মুরগির ফার্ম দেখাশোনা করে ।
২০২১ সালের জানুয়ারিতে প্রথম তার বানানো বিমান উড়ান । তারপর আবার জয়নগর আফছার উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে ২৫ অক্টোবর ২০২১ তারিখে সাংবাদিকদের সামনে বিমান উড়ান। তার বিমানটি রিমোট কন্ট্রোলের মাধ্যমে চলে। ফুল চার্জে ২০ মিনিট পর্যন্ত উড়ানো যায়। সে বিমানের মালামাল সংগ্রহ করে চীন থেকে। সেখান থেকে ট্রানমিটার,ব্যাটারি, মর্টার ইত্যাদি সংগ্রহ করেন বাকী জিনিস বাংলাদেশে পাওয়া যায়। সে এখন বুয়িং ৭৮৭৯ বিমান বানানোর পরিকল্পনা করছে। তার ফুফাতো ভাই হুমায়ুন কবির হাসনাত তাকে সর্বপ্রকার সহযোগিতা করেন। তার ইচ্ছা বিমান এভিয়েশনে পড়াশোনা করা এবং যাত্রীবাহী বিমান বানানো।

সোহান জানান,’সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা পেলে আমি জাতিকে ভালো কিছু দিতে পারবো’। তিনি বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি পেলে আমি দেশেই তৈরী করতে পারবো বিভিন্ন ধরণের বিমান’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here