Wednesday, May 25, 2022
Homeজাতীয়১২-১৭ বছর বয়সি শিক্ষার্থীদের জন্য ফাইজারের দুই কোটি ডোজ ভ্যাকসিনের সংস্থান হয়েছে...

১২-১৭ বছর বয়সি শিক্ষার্থীদের জন্য ফাইজারের দুই কোটি ডোজ ভ্যাকসিনের সংস্থান হয়েছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

১২-১৭ বছর বয়সি শিক্ষার্থীদের জন্য ফাইজারের দুই কোটি ডোজ ভ্যাকসিনের সংস্থান হয়েছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

 

ঢাকা নভেম্বর ০১ ২০২১ :

 

আজ রাজধানীর মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজে ঢাকাসহ দেশব্যাপী ১২-১৭ বছর বয়সি শিক্ষার্থীদের টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ও স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।

শিক্ষামন্ত্রী তাঁর বক্তব্যে শিক্ষার্থীদেরকে টিকা নেবার আগে ও পরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান। টিকাদান কর্মসূচি সফলভাবে সম্পন্ন করার জন্য তিনি এসময় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর প্রশংসা করেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ১২-১৭ বছর বয়সি শিক্ষার্থীদের জন্য ফাইজার ভ্যাকসিনটি উপযুক্ত। এই ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা সব থেকে বেশি পাওয়া গেছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও শিশুদের জন্য ফাইজারের ভ্যাকসিন অনুমোদন করেছে। একারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে দেশের প্রায় ৩ কোটি শিক্ষার্থীকে ফাইজারের ভ্যাকসিন দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তার মধ্যে প্রায় ২ কোটি ডোজ ভ্যাকসিনের সংস্থান হয়ে গেছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরো জানান, শিক্ষার্থীদের জন্য এ পর্যন্ত দেশে ৯৬ লাখ ডোজ ফাইজারের ভ্যাকসিন এসেছে। এরমধ্যে নানাভাবে ১৪ লাখ ডোজ দেয়া হয়েছে। হাতে এখন আছে ৮২ লাখ ডোজ। খুব দ্রুতই ফাইজারের আরো ৯২ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন চলে আসবে। সব মিলে সারাদেশের শিক্ষার্থীদের জন্য ৩ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন লাগবে। বাকি অবশিষ্ট আরো ১ কোটি ডোজ দ্রুতই ব্যবস্থা করে দেশের সকল এলাকার ১২-১৭ বছর বয়সি শিক্ষার্থীদের ফাইজারের টিকা দেয়া সম্পন্ন হবে।

প্রাথমিক পর্যায়ে ঢাকার ৮টি কেন্দ্রে প্রতিটি থেকে ৫ হাজার ডোজ করে দিনে প্রায় ৪০ হাজার শিশুকে ভ্যাকসিন দেয়ার পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছে বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী। যেহেতু ফাইজারের টিকাটি বিশেষ তাপমাত্রায় রাখতে হয়, তাই সব ব্যবস্থা ঠিক করে দ্রুতই সারাদেশেরই ১২-১৭ বছর বয়সি শিশুদের টিকা দেয়ার উদ্যোগ
নেয়া হবে।

স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সিনিয়র সচিব লোকমান হোসেন মিয়ার সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য রাখেন  মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল কে মিলার, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ মাহবুব হোসেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম, মাধ্যমিক উচ্চ শিক্ষার মহাপরিচালকসহ অন্যান্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular