সম্পদের সুষম বন্টন নিশ্চিত করতে পারলে কেন্দ্রীয় শহর গুলোর উপর চাপ কমবে : ড. আদিল মুহাম্মদ খান

0
90

 সম্পদের সুষম বন্টন নিশ্চিত করতে পারলে কেন্দ্রীয় শহর গুলোর উপর চাপ কমবে : ড. আদিল মুহাম্মদ খান

 

ঢাকা নভেম্বর ০১ ২০২১ :

 

সামগ্রীক নগর পরিকল্পনায় প্রাকৃতিক সম্পদের সুষম বন্টনে গুরুত্ব প্রদান, মহাপরিকল্পনা প্রণয়নসহ সকল ধরনের পরিকল্পনা প্রনয়ণের সময় ডাটা স্বল্পতা, ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে ডাটা সকলের জন্য সহজলভ্য করা, বিভিন্ন সংস্থার কাঠামো এবং কার্যক্রম পর্যালোচনার মাধ্যমে পেশাজীবিদের সম্পৃক্তকরণ, জাতীয় ভৌত পরিকল্পনা প্রণয়ন, সমতা সুনিশ্চিত করতে উন্নয়নকে প্রাধান্য দেওয়ার সাথে সাথে পরিবেশ কে বিবেচনায় রাখা, অর্থনৈতিক বিকেন্দ্রীকরণ সহ নানাবিধ মতামত প্রদান করেন আলোচকরা।

বিশ্ব নগর দিবস ও আন্তর্জাতিক জলবায়ু পরিবর্তন শীর্ষক সম্মেলনে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন এবং নগরায়ণের ক্রমবর্ধমান ধারা সামনের দিনের নগরায়ণের গতি প্রকৃতির নির্ধারণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলে মন্তব্য করেন অধিবেশন এর সভাপতি পরিকল্পনাবিদ অধ্যাপক ড. আদিল মুহাম্মদ খান।

তিনি আরও বলেন, জাতীয় ভৌত পরিকল্পনার মাধ্যমে সম্পদের সুষম বন্টন নিশ্চিত করতে পারলে কেন্দ্রীয় শহর গুলোর উপর চাপ কমবে এবং জলবায়ু উদ্বাস্তুদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা সম্ভব হবে।

এছাড়াও অধিবেশনে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ এর নগর পরিকল্পনাবিদ মাহফুজা আক্তার কর্তৃক উপস্থাপতি অপর এক প্রবন্ধে টেকসই শহর গড়ে তুলতে নগর পরিকল্পনা ও ব্যবস্থাপনায় স্ট্র্যাটেজিক পরিকল্পনা পাশাপাশি রাজনৈতিক সদিচ্ছার মাধ্যমে পরিকল্পিত নগরায়ণের পথে বিদ্যমান বিভিন্ন সমস্যা সমাধান করা সম্ভব বলে তিনি মন্তব্য করেন। একইসাথে ভূমি ব্যবহার পরিকল্পনা, পরিবেশ এবং প্রতিবেশ কে প্রাধান্য দিয়ে পরিকল্পনা করতে হবে বলেও উল্লেখ করেন এই নগর পরিকল্পনাবিদ।

অধিবেশনে নগর উন্নয়ন অধিদপ্তরের পক্ষে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রতিষ্ঠানটির উপ-পরিচালক জনাব আহমেদ আখতারুজ্জামান। তার উপস্থাপিত প্রতিবেদনে পরিকল্পনা প্রণয়ণে শিল্পায়ণের বিকাশের ফলে পরিবেশের উপর যে বিরুপ প্রভাব পড়ছে তার সকল ধরণের মূল্যায়ণ এবং পরিবহণ খাত, গণপরিসর সহ সকল ক্ষেত্রে পরিকল্পনাবিদদের সম্পৃক্ত থাকার উপর গুরাত্বারোপ করা হয়।

বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্ল্যানার্স (বি.আই.পি.) এর উদ্যোগে এবং জার্মান এজেন্সী ফর ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন (জিআইজেড) বাংলাদেশ এর  সহযোগিতায় ‘Planning for Inclusiveness and Sustainability in Post Pandemic Era (মহামারী পরবর্তী কালে অন্তর্ভূক্তিতা ও স্থায়িত্বশীলতার জন্য পরিকল্পনা)’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বিগত ৩০ অক্টোবর ২০২১ তারিখ থেকে সপ্তাহব্যাপী চলমান নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলন (আইকার্প) ২০২১ এর “প্রথম ভার্চুয়াল অধিবেশনঃ টেকসই উন্নয়নের জন্য নগর পরিকল্পনা ও ব্যবস্থাপনা” ৩১ অক্টোবর ২০২১ তারিখে ভার্চুয়াল জুম প্লাটফর্মে অনুষ্ঠিত হয়। অধিবেশনটি বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্ল্যানার্স (বি.আই.পি.) এর অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেল এবং ফেসবুক পেইজ থেকে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়।

বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্ল্যানার্স (বি.আই.পি.) এর সাধারণ সম্পাদক এবং জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের অধ্যাপক পরিকল্পনাবিদ ড. আদিল মুহাম্মদ খান এর সঞ্চালনায় এবং সভাপতিত্বে এই অধিবেশনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করে যথাক্রমে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) এবং নগর উন্নয়ন অধিদপ্তর। প্রথম অধিবেশনে বিশেষ আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইনস্টিটিউট অব ওয়াটার মডেলিং এর সহযোগী বিশেষজ্ঞ মোঃ জাহিদ হাসান সিদ্দিকী এবং শেলটেক কনসালটেন্টস (প্রাঃ) লিঃ এর হেড অব অপারেশনস মুহাম্মদ আরিফুল ইসলাম। এছাড়াও অধিবেশনের মনোনীত প্রবন্ধ হিসেবে Future of Spatial Planning in Bangladesh শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করে জনাব সুজাউল ইসলাম খান এবং Environmental Impact Assessment (EIA) of a Project of Sreemangal Paurashava: An Analytical Study moving towards Environmental Sustainability প্রবন্ধটি উপস্থাপন করে মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here