ঢাকায় বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের যৌথ উদ্যোগে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার উপর অনুশীলন সমাপ্ত

0
30

ঢাকায় বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের যৌথ উদ্যোগে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার উপর অনুশীলন সমাপ্ত

 

ঢাকা, ২৮ অক্টোবর ২০২১:

 

ঢাকার আর্মি গল্ফ ক্লাবে আজ বৃস্পতিবার (২৮-১০-২০২১) বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী ও মার্কিন সেনাবাহিনীর যৌথ উদ্যোগে ভূমিকম্প পরবর্তী অনুসন্ধান ও উদ্ধার বিষয়ক তিন দিনব্যাপী অনুশীলন সমাপ্ত হয়েছে।

ডিসাস্টার রেসপন্স এক্সারসাই এন্ড একচেঞ্জ বাংলাদেশ-২০২১ (Disaster Response Exercise and Exchange – DREE) শীর্ষক এ অনুশীলনের সমাপনী দিনে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ড.এ. কে. আব্দুল মোমেন. এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। অন্যদিকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা: মো এনামুর রহমান বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন।

এ অনুশীলনের মূল উদ্দেশ্য হলো- ভূমিকম্প তথা সকল দুর্যোগ ব্যবস্থপনায় আন্তর্জাতিক পদ্ধতির উপর সম্যক ধারনালাভ, দুর্যোগ মোকাবেলায় সমন্বিত প্রয়াস বিশ্চিত করনের জন্য সকল অংশীজনের মধ্যে সমন্বয় বৃদ্ধি, ভূমিকম্প মোকাবেলায় অনুসন্ধান ও উদ্ধার, যোগাযোগ, মেডিক্যাল শেল্টার ও ত্রাণ কার্যক্রম ইত্যাদির আলোকে দুর্যোগ ব্যবস্থপনার গাইড লাইন চূড়ান্তকরণ ইত্যাদি।  সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার লেঃ জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান, এসজিপি, পিএসসি, দুর্যোগ ব্যবস্থপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো: মোহসীন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল আর মিলার সমাপনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

ভূমিকম্প দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক এ অনুশীলন বিগত ২০১০ সাল থেকে ঢাকায় অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ ও ইউএস আর্মি প্যাসিফিক -এর যৌথ উদ্যোগে যথাযথ কোভিড-১৯ প্রটোকল অনুসরণপূর্বক অনুশীলনটি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অনুশীলনে ২৩টি দেশের ১৪৭টি সংস্থার ৩০০-এর অর্ধিক প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেন। দেশগুলো হচ্ছে বাংলাদেশ, নেপাল, ভারত, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা, জাপান, ভূটান, মালদ্বীপ, শ্রীলংকা, অষ্ট্রেলিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, তুরস্ক, ফিজি, মঙ্গোলিয়া, লাওস, কেনিয়া, জার্মানী, নিউজিল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, নাইজেরিয়া ও চীন।

অংশগ্রহণকারীগণ দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় জড়িত বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, সংস্থা ও এনজিওসমূহকে প্রতিনিধিত্ব করেন। এছাড়া দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত বিষয়ে অধ্যয়নরত বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও স্বেচ্ছাসেবকরা এ অনুশীলনে অংশ নিয়েছে। এই ধরনের অনুশীলন ভূমিকম্প পরবর্তী দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার আন্তর্জাতিক পর্যায়ে পারস্পরিক সহযোগিতা বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে। এবারের এই অনুশীলনের মূল প্রতিপাদ্য ছিল “Resilience Through Preparedness’’.

এই মূল প্রতিপাদ্য সামনে রেখে DREE BANGLADESH 2021 দুর্যোগ ব্যবস্থপনার একটি মাইল ফলক হয়ে থাকবে বলে সকলে আশা প্রকাশ করে। এ অনুশীলন এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ভূমিকম্প দুর্যোগ মোকাবেলা সংক্রান্ত বৃহত্তম অনুশীলন। আজ অনুশীলনটির উদ্বোধন ও সাবজেক্ট ম্যাটার এক্সপার্ট এক্সচেইঞ্জ (Subject Matter Expert Exchange – SMEE) অনুষ্ঠিত হয়েছে যেখানে Subject Matter Expert কর্তৃক ধারাবাহিক উপসস্থাপনা/আলোচনা করা হয়। অনুশীলনের দ্বিতীয় দিন SMEE এবং Table Top Exercise – TTX অনুষ্ঠিত হবে যেখানে ভূমিকম্প আঘাত হানার পরবর্তী পরিসিস্থতির আলোকে অংশগ্রহণকারীদের বিভিন্ন Functional Group এ বিভক্ত করা হয়। TTX এর মাধ্যমে Disaster Incident Management Team –DIMT এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার অন্যান্য ফ্রেমওয়ার্ক সমূহকে আরো শক্তিশালী করার সকল চ্যালেঞ্জ এবং তা মোকাবেলার উপায়সমূহ চিহ্নিত করণের প্রয়াস নেয়া হয়েছে।

এছাড়াও কোভিড-১৯ এর মতো মহামারীকালীন সময়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার চ্যালেঞ্জসমূহ এবং তা মোকাবেলার করণীয় বিষয়ের উপরেও আলোকপাত করা হয়। তৃতীয় দিন অনুশীলনটির After Action Review এবং সমাপনী অনুষ্ঠান এর মাধ্যমে শেষ হয়। এবছর Covid Protocol নিশ্চিতের জন্য অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা সীমিত করা হয়েছে। এছাড়া, এবারই প্রথম Physical এবং Virtual Participation এর মাধ্যমে দেশ এবং দেশের বাইরে থেকে এই অনুশীলনে অংশগ্রহণের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।

অন্যান্যের মধ্যে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র, সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ, ওএসপি, এনডিইউ, পিএসসি, পিএইচডি, ভারপ্রাপ্ত নৌবাহিনী প্রধান রিয়ার এডমিরাল এম আশরাফুল হক, এনবিপি, এনইউপি, বিসিজিএম, এনডিসি, এএফডব্লিউসি, পিএসসি এবং ভারপ্রাপ্ত বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার ভাইস মার্শাল শফিকুল আলম, বিবিপি, ওএসপি, বিএসপি, এনডিসি, এএফডব্লিউসি, পিএসসি উপস্থিত ছিলেন। তাছাড়া অসামরিক উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, অংশগ্রহণকারী দেশসমূহের রাষ্ট্রদূত, সামরিক উপদেষ্টা ও কূটনীতিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here