বেন (নিউইয়র্ক-নিউজার্সি-কানেক্টিকাট চ্যাপ্টার) এর সমন্বয়ক মোহাম্মদ হারুন এর অকাল  মৃত্যুতে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)’র শোক বার্তা

ঢাকা, ১৩ জুন ২০২১:

 

আমরা অত্যন্ত গভীর দুঃখের সাথে জানাচ্ছি যে, বেন (নিউইয়র্ক-নিউজার্সি – কানেক্টিকাট চ্যাপ্টার) এর সমন্বয়ক, মোহাম্মদ হারুন

গত ১১ জুন, ২০২১, বিকেল ৩.০০ টায় নিউইয়র্কের একটি স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন (ইন্না-নিল্লাহি ওয়া ইন্না-ইলার্হি রাজিউন)।

মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল তার ৫০ বছর।

তিনি দীর্ঘদিন ধরে ফুসফুস ক্যান্সারে ভুগছিলেন এবং শল্য চিকিৎসা করার আগে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল।

তার এই অকাল মৃত্যুতে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)’র নির্বাহী পরিষদ, জাতীয় পরিষদ, সাধারণ পরিষদ ও বাপা’র ২৫টি বিষয় ভিত্তিক কর্মসূচী কমিটি এবং বাপা আঞ্চলিক শাখা’র পক্ষ থেকে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করছি।

মোহাম্মদ হারুন ছিলেন একজন বিচক্ষণ ও দেশ প্রেমিক ব্যক্তি, যিনি পরিবেশ এবং অন্যান্য প্রগতিশীল দাবী আদায়ের আন্দোলনে নিবেদিত ছিলেন।

 তিনি যুক্তরাষ্ট্রে আসার আগে পরিবেশ আন্দোলনের সাথে জড়িত হয়ে চট্টগ্রামে বাপা কার্যক্রমে সক্রিয় ছিলেন।

অসুস্থতা সত্ত্বেও, তিনি বেন (নিউইয়র্ক-নিউজার্সি-কানেক্টিকাট চ্যাপ্টার) অধ্যায়টিকে সক্রিয় রাখতে আগ্রহী ছিলেন।

 এ বছরের মার্চ মাসে তিনি মহেশখালীর কোহেলিয়া নদী ভরাটের আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। তাঁর মৃত্যুর সাথে সাথে বেন-বাপা একটি নিবেদিত, সক্ষম সংগঠককে হারিয়ে অপূরণীয় ক্ষতি উপলব্ধি করছে।

 পরিবেশ ও সমাজসেবায় তার এই অসামান্য অবদান আমরা অত্যন্ত কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করছি।

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৮ বছেরের কন্যা ও ১২ বছরের পূত্র সন্তানসহ অসংখগুনগ্রাহী ও প্রিয়জন ও ভক্ত রেখে গেছেন।

আমরা মরহুমের বিদেহী আত্মার শান্তি ও মাগফেরাত কামনা করছি ও তার শোক সন্তুপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করছি।’’