বিসিকের ‘ওয়ান স্টপ সার্ভিস কে ‘নন স্টপ সার্ভিস রূপে সেবা দিতে হবে : শিল্পমন্ত্রী

 

ঢাকা, ১৩ জুন ২০২১:

 

শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেছেন, বিসিকের ‘ওয়ান স্টপ সার্ভিস’কে ‘নন স্টপ সার্ভিস’ রূপে সেবা দিতে হবে। ‘ওয়ান স্টপ সার্ভিস’ যেন কার্যকর ‘ওয়ান স্টপ সার্ভিস’ই হয়, সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। ওয়ান স্টপ সার্ভিস যেমন আনন্দের, তেমনি এর দায়িত্বও অনেক বেশি। বিসিকের অন্য সকল ক্ষেত্রের মতো এই ‘ওয়ান স্টপ সার্ভিস’ যেন সফল হয়। বিসিকের ‘ওয়ান স্টপ সার্ভিস’ সেন্টার উদ্বোধনের মাধ্যমে নতুন যুগের সূচনা হলো। এর ফলে নতুন নতুন বিনিয়োগ ও শিল্পায়নের গতি ত্বরানি¦ত হবে, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত হবে।

বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক) এর ‘ওয়ান স্টপ সার্ভিস (One Stop Service)-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। আজ রাজধানীর একটি হোটেলে ‘ওয়ান স্টপ সার্ভিস’এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বিসিক-এর চেয়ারম্যান মোঃ মোশতাক হাসান এতে সভাপতিত্ব করেন। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কে এম আলী আজম, শিল্পসচিব জাকিয়া সুলতানা এবং এফবিসিসিআই’র সভাপতি মোঃ জসিম উদ্দিন।

মন্ত্রী বলেন, দেশকে শিল্পায়নের কাক্সিক্ষত লক্ষ্যে পৌঁছাতে সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। অন্যান্য অনেক ক্ষেত্রের মতো বাংলাদেশে শিল্পায়নে সরকার নতুন ইতিহাস তৈরিতে সক্ষম হবে। বিসিকের চলমান কার্যক্রম এই ইতিহাস তৈরিতে অগ্রণী ভূমিকা রাখবে। এক্ষেত্রে শিল্পের সাথে সংশ্লিষ্টদেরও অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। তিনি আরো বলেন, জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা ও প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে ‘ওয়ান স্টপ সার্ভিস’ এর কোনো বিকল্প নাই। কেননা বাংলাদেশের জনগণের জীবনমান দ্রুত উন্নয়নের স্বার্থে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ ও পরিকল্পনা দ্রুত বাস্তবায়নের লক্ষ্যে দেশের উদ্যোক্তা ও বিনিয়োগকারীকে প্রয়োজনীয় সকল সেবা নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে কোনো ধরণের ভোগান্তি ছাড়াই নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে এই ওয়ান স্টপ সার্ভিস চালু করা হয়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শিল্প প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিসিক ওয়ান স্টপ সার্ভিস  শিল্পায়নের জন্য সত্যি এক মাইলফলক।  কুটির, মাইক্রো, ক্ষুদ্র মাঝারি শিল্পের উদ্যোক্তাদের দ্রুততম সময়ে হয়রানিমুক্ত সেবা প্রদানের নিমিত্তে  ওয়ান স্টপ সার্ভিস এর কোনো বিকল্প নেই। ওয়ান স্টপ সার্ভিস  এর মাধ্যমে উদ্যোক্তাগণ দ্রুততম সময়ে হয়রানিমুক্ত সেবা পাবেন। তিনি বলেন, এক সময় দেশে শিল্প স্থাপন বা ব্যবসায়ী উদ্যোগকে এগিয়ে নেয়ার ক্ষেত্রে প্রধান অন্তরায় ছিল দাপ্তরিক হয়রানি এবং জটিলতা। ওয়ান স্টপ সার্ভিস চালু করার মাধ্যমে দেশ সে অবস্থা থেকে উত্তরণ লাভ করবে।

সভাপতির বক্তব্যে বিসিক চেয়ারম্যান বলেন, ওয়ান স্টপ সার্ভিস  চালুর ফলে বিনিয়োগে আগ্রহী উদ্যোক্তাগণকে দ্রুততম সময়ে সেবা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে। এতে বিসিক শিল্পনগরীগুলোতে নতুন দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ আকৃষ্ট হবে ও দেশে পরিবেশবান্ধব শিল্পায়ন গতিশীল হবে। দেশে পরিবেশবান্ধব শিল্পায়নের মাধ্যমে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণ সম্ভব হবে। তিনি আরো বলেন, ওয়ান স্টপ সার্ভিস চালুর ফলে বিসিক শিল্পনগরীগুলোতে বিদেশি বিনিয়োগ হবে এবং Doing Business Ranking এ বাংলাদেশের বর্তমান অবস্থান থেকে উত্তরণ সম্ভব হবে।

উল্লেখ, আজ থেকেই এই ওয়ান স্টপ সার্ভিসের মাধ্যমে শিল্প নিবন্ধন করতে পারবে। পর্যায়ক্রমে অন্য সকল সেবা এই সেন্টার থেকে প্রদান করা হবে।