মালয়েশিয়া সরকারের প্রতি অধিকার-ভিত্তিক ৮৪টি সংস্থার আহ্বান
মালয়েশিয়ায় আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে সহিংস হুমকি এবং হিংসাত্মক
প্রচারণা বন্ধ করুন

১১ মে, ২০২০:

মানবাধিকার ভিত্তিক ৮৪ টি জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সংস্থা মালয়েশিয়ায় আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রতি সহিংসতার হুমকি এবং ‘হিংসাত্মক প্রচারণার’ বিষয়ে মালয়েশিয়া সরকারের যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণে ব্যর্থতায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

তারা মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো এক বিবৃতিতে সম্প্রতি এই উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। বিবৃতিতে স্বাক্ষরকারী অন্যতম সংস্থাগুলো হলো- কোস্ট ট্রাস্ট, কক্সবাজার সিএসও-এনজিও ফোরাম (সিসিএনএফ), এমনেস্টি ইন্টারনেশনাল মালয়েশিয়া, সিভিকাস, ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব হিউম্যান রাইটস, ফর্টিফাই রাইটস এবং হিউম্যিান রাইটস ওয়াচ।

বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়, ২০২০ সালের এপ্রিলের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে মালয়েশিয়ায় রোহিঙ্গা সম্প্রদায়কে লক্ষ্য করে বিভিন্ন হিংসাত্মক প্রচারণা বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। বহু পোস্টে বৈষম্যমূলক ও অমানবিক ভাষা ও চিত্রের পাশাপাশি মালয়েশিয়ার রোহিঙ্গাদের জোর করে মিয়ানমারে ফিরিয়ে দেওয়ার আহ্বান জানানো হচ্ছে। রোহিঙ্গা বহিষ্কারের আহ্বান জানিয়ে অসংখ্য অনলাইন পিটিশন করা হয়। অনলাইন ব্যবহারকারীরা বিশিষ্ট রোহিঙ্গা নেতাকর্মীদের পাশাপাশি তাদের সমর্থকদের শারীরিক আক্রমণ, হত্যা এবং যৌন সহিংসতার হুমকি দেয়।

বিবৃতিটিতে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয় যে, রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর প্রতি পরিচালিত ‘বিদ্বেষমূলক বক্তব্য’ ও সহিংস হুমকির সম্প্রতি বেড়ে গেলেও মালয়েশিয়ার সরকার যথাযথভাবে এই ব্যাপারে উদ্যোগ নিতে ব্যর্থ হয়েছে। তদুপরি, এসব বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ মালয়েশিয়ার কর্মকর্তাদের বক্তব্য উত্তেজনা বাড়াতে পারে এবং রোহিঙ্গাদের বিরুেেদ্ধ সহিংসতা ও বৈষম্যকে উস্কে দিতে পারে।

 

বিবৃতিতে দেশটির প্রধানমন্ত্রীকে রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে সাম্প্রতিক ‘বিদ্বেষমূলক বক্তব্য’ ও হিংসাত্মক হুমকি মোকাবিলার লক্ষ্যে অবিলম্বে পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানানো হয়। বিবৃতিটিতে তিনটি সুনির্দিষ্ট সুপারিশ তুলে ধরা হয়:

  •  আন্তর্জাতিক মানবাধিকারের মানদ-ের সাথে সামঞ্জস্য রৈখে বৈষম্যবিরোধী বিধি বিধান সহ মালয়েশিয়ায় মত প্রকাশের অধিকার এবং সমতার অধিকারের জন্য একটি সক্ষম পরিবেশ তৈরি করা
  •  মানবাধিকার কাউন্সিলের ১৬/১৮ রেজোলিউশন এবং রারাত প্ল্যান অব এ্যাকশনের সাথে সামঞ্জস্য রেখে সমতা, বৈষম্যহীনতা এবং আন্তঃসংস্কৃতিক বোঝাপড়া সম্প্রসারণের জন্য ইতিবাচক নীতিগত পদক্ষেপ গ্রহণ ও প্রয়োগ
  • নাগরিক ও রাজনৈতিক অধিকার সম্পর্কিত আন্তর্জাতিক চুক্তি(International Covenant on Civil and Political Rights), জাতিগত বৈষম্য দূরীকরণ সম্পর্কিত আন্তর্জাতিক কনভেনশন (The International Convention on the Elimination of All Forms of Racial Discrimination)শরণার্থীদের অবস্থা বিষয়ক 1967 এর  প্রোটোকল সম্পর্কিত কনভেনশনকে (The Convention Relating to the Status of Refugees and its 1967 Protocol) অনুমোদন প্রদান।