ভৈরবে ভুল চিকিৎসায় শিশুর মৃত্যু চিকিৎসকের বিচার দাবীতে মানব বন্ধন

এম আর ওয়াসিম ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি : ভৈরবে ভূল চিকিৎসায় শিশুর মৃত্যুর অভিযোগে চিকিৎসকের বিচার দাবীতে এলাকাবাসী ও স্বজনদের মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে । প্রসূতি মা প্রমি খানমের গর্ভের সন্তানের মৃত্যুর ঘটনায় আবেদীন জেনারেল হাসপাতালের গাইনী ও প্রসূতি ডাক্তার উম্মুল খায়ের মাহমুদা ও ফারজানা রহমান এবং ডাঃ আমিন উদ্দীনের বিচার দাবীতে এ মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে । নিহত শিশুর বাবা মোঃ আজহারুল ইসলাম ও এলাকাবাসীদের আয়োজনে আজ শুক্রবার বেলা ১১ টার দিকে ভৈরব কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে ঘন্টা ব্যাপী মানব বন্ধনে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ- সভাপতি সেলিম খান, প্রসূতি প্রমি খানমের বাবা মকবুল হোসেন, সুমন খান ও নিহত শিশুর বাবা আজহারুল ইসলাম খান প্রমূখ। এ সময় বক্তারা বলেন, প্রসূতি প্রমি খানমের গর্ভে সন্তান আসার পর থেকেই হাসপাতালের ডাঃ উম্মল খায়ের মাহমুদার তত্বাবধানে চিকিৎসাধীন ছিলেন। কিন্ত হাসপাতালের আলট্রাসনোগ্রামের রিপোর্টে আরো ১ মাস পরে সন্তান ডেলিভারি হবে বলে উম্মুল খায়ের মাহমুদা জানান। কিন্ত প্রসূতি মা জানান, তার ডেলিভারির সময় হয়ে গেছে । এ কথা জানানোর পর ও তাকে সঠিক চিকিৎসা দেয়া হয়নি। পরে গর্ভের সন্তান যখন নড়াচড়া করেনা জানানাের পর গত ১৫ মার্চ পরবর্তীতে পুনরায় আলট্রাসনোগ্রাম করে ডাক্তার জানান,রোগীর গর্ভের সন্তানের অবস্থা ভালো নয় বলে তড়িঘড়ি করে ঢাকায় পাঠানো হয। পরে ওই দিনই ঢাকায় আদ্বদীন হাসপাতালের আলট্রামনোগ্রাম করে জানানো হয় গত কয়েকদিন আগে রোগীর গর্ভে নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে । পরে সেখানে সিজারের পর মৃত সন্তান বের করা হয়। এ সময় বক্তারা আরো বলেন, হাসপাতালের ডাক্তারদের ডাক্তারী পাসের সনদপত্র বৈধ আছে কি না যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে । তাই ঘটনাটির সুষ্ঠু তদন্ত করে স্বাস্থ্য মন্তণালয় ও প্রধান মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছেন ভোক্তভোগী পরিবার ও এলাকাবাসিরা ।

সর্বশেষ