নরসিংদীর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ‘রোজার সাশ্রয়ী বাজার’ এর শুভ উদ্বোধন

বশির আহম্মদ মোল্লা,নরসিংদী প্রতিনিধি:

নরসিংদীতে রমজানে সাশ্রয়ী বাজার মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে নরসিংদীর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ‘রোজার সাশ্রয়ী বাজার’ এর শুভ উদ্বোধন”করা হয়েছে।
আজ ১৬ মার্চ ২০২৪ পঞ্চম রোজার দিনে নরসিংদীর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে পবিত্র রমজান মাসে সাশ্রয়ী মূল্যে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য বিক্রির অনন্য আয়োজন ‘রোজার সাশ্রয়ী বাজার’ উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক ও বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ড. বদিউল আলম। রমজান মাসজুড়ে প্রতি সপ্তাহের শনিবার, মঙ্গলবার এবং বৃহস্পতিবার নরসিংদীর শিক্ষা চত্বর সংলগ্ন বঙ্গবন্ধু পৌর পার্কে সকাল ৯.০০ টা থেকে এ বাজার বসবে।নরসিংদীর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এ বাজারে প্রচলিত বাজার দরের থেকে কম মূল্যে গরুর মাংস, মুরগির মাংস, মাছ, ডিম, ফলমূলসহ টাটকা শাকসবজি ও এলপি গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রি করা হচ্ছে। উল্লেখ্য, এ বাজারে ৬৫০ টাকা কেজি দরে গরুর মাংস বিক্রি করা করা হচ্ছে যা বিক্রি শুরুর দেড় ঘণ্টার মধ্যেই শেষ হয়ে যায়। নরসিংদীর সর্বস্তরের জনগণের জন্য উন্মুক্ত এ বাজার পবিত্র রমজান মাসে সাশ্রয়ী মূল্যে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য ক্রয়ের ক্ষেত্রে অসামান্য ভূমিকা রাখতে শুরু করেছে প্রথম দিন থেকেই। ক্রেতাগণ গরুর মাংস, ডিম, মুরগী, শাক-সবজি সাশ্রয়ী মূল্যে ক্রয় করতে পেরে স্বস্তি প্রকাশ করেছেন।
‘রোজার সাশ্রয়ী বাজার’ এর উদ্বোধনের পরে দেখা যায় প্রতিটি সামগ্রী স্থানীয় বাজারের তুলনায় স্বল্পমূল্যে বিক্রি করা হয়েছে। ব্রয়লার মুরগী স্থানীয় বাজারসমূহে ২১০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হলেও রোজার সাশ্রয়ী বাজারে বিক্রি হয়েছে ১৮৫ টাকা কেজি দরে। লাউ, বেগুন, করলা ইত্যাদির ক্ষেত্রেও দেখা গেছে কেজি প্রতি ২০-২৫ টাকা কম দরে বিক্রি করা হয়েছে। ডিম প্রতি হালি বাজারে ৪২-৪৪ টাকা হলেও এ বাজারে মূল্য হালিপ্রতি ৩৬ টাকা।
জেলা প্রশাসক ও বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ড. বদিউল আলম জানান, সরাসরি খামারি, পোল্ট্রি চাষি, ও ডিলারদের সাথে যোগাযোগ স্থাপন করার মাধ্যমে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে দাম কমানো সম্ভব হয়েছে। এর সুপ্রভাবে অন্যান্য বাজার গুলোতেও দাম কমতে শুরু করেছে বলে তিনি জানান। পার্শ্ববর্তী শিক্ষা চত্বর সংলগ্ন নয়া বাজারে খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, গরুর দাম কেজি প্রতি ৫০ টাকা ও মুরগীর দাম কেজি প্রতি ১০ টাকা কমে গেছে ‘রোজার সাশ্রয়ী বাজার’ এর প্রভাবে।
আগামী মঙ্গলবার হতে রোজার সাশ্রয়ী বাজারে এ সমস্ত পণ্যসমূহ ছাড়াও চাল, তেল, ডাল, আটার মতো নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রীও ন্যায্য মূল্যে পাওয়া যাবে। এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ মোস্তফা মনোয়ার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রাজস্ব মাসুম, নরসংিদী সদর উপজলোর উপজলো নর্বিাহী র্কমর্কতা আসমা সুলতানা নাসরীন, জলো প্রশাসনরে সহকারী কমশিনার ও এক্সকিউিটভি ম্যাজস্ট্রিটে এ. এইচ. এম. আজমিুল হক ,নরসিংদী প্রেক্লাব সভাপতি মো: নুরুল ইসলাম ও সেক্রেটারী মোবারক হোসেন প্রমুখ।

সর্বশেষ