চার বছরের জন্য নিষিদ্ধ পগবা

আকাশ দাশ সৈকত

অ্যান্টি-ডোপিং নীতিমালা লঙ্ঘন করায় চার বছরের জন্য সবধরণের ফুটবল থেকে নিষিদ্ধ হয়েছেন ফ্রান্সের বিশ্বকাপজয়ী তারকা ফুটবলার পল পগবা। আজ একাধিক ইতালিয়ান সংবাদ মাধ্যমকে বরাত দিয়ে এই তথ্য নিশ্চিত করেছে লেকিপ।

চোটের কারণে ছিলেন না ফ্রান্সের বিশ্বকাপ দলে। তবে চোট কেটে আবারো পুরোদমে মাঠে নেমেছিলেন ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাসের হয়ে। তবে বারবার চোটের কারণে মাঠের বাইরে থাকলেও এবার চার বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন বিশ্বকাপজয়ী এই তারকা। গত বছর নিষিদ্ধ ওষুধ সেবন করার অভিযোগ ওঠে জুভেন্তাসের এই তারকার বিরুদ্ধে। এরপর ১০ আগস্ট টেস্টোস্টেরন টেস্ট করা হলে পজিটিভ ফল আসে পগবার। ফলে এখানেই তার ফুটবল ক্যারিয়ারের চার বছরের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন ইতালির ন্যাশনাল অ্যান্টি-ডোপিং ট্রাইব্যুনাল (ন্যাডো)

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি বলছে, গত সেপ্টেম্বরেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সাবেক এই তারকাকে অস্থায়ীভাবে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছিল। এবার পগবাকে স্থায়ীভাবে চার বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে ইতালির ন্যাশনাল অ্যান্টি-ডোপিং ট্রাইব্যুনাল (ন্যাডো)। অক্টোবরে ন্যাডো ৩০ বছর বয়সী এই তারকার দেহ থেকে দ্বিতীয় নমুনা নেয় এবং অ্যান্টি-ডোপিং প্রসিকিউটর ন্যূনতম চার বছরের নিষেধাজ্ঞার আবেদন জানিয়েছিল।

তুরিনের ক্লাব জুভেন্তাসের সঙ্গে পগবার চুক্তির মেয়াদ ২০২৫ সাল পর্যন্ত। নিষেধাজ্ঞায় পড়ার কারণে তার সেই চুক্তিও এখন যেকোনো সময়ে বাতিল হয়ে যেতে পারে। এইদিকে বর্তমানে পগবার বয়স ৩১ বছর তাইতো শাস্তির মেয়াদ শেষে ফুটবল মাঠে আর নাও ফিরতে পারেন। তাইতো এইখানে পগবার ফুটবল ক্যারিয়ারের ইতি দেখছেন অনেকে। তবে পগবা চাইলে স্পোর্টসের সর্বোচ্চ আদালত কোর্ট অব আরবিট্রেশনে এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করতে পারবেন।

সর্বশেষ