আফগানিস্তানে ভারী তুষারপাত, নিহত ১৫

 

গত তিন দিনে আফগানিস্তানের বিভিন্ন প্রদেশে ব্যাপক ভারী তুষারপাতে ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে প্রায় ৩০ জন। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম টোলো নিউজের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, তুষারপাতের কারণে গবাদি পশুরও ক্ষতি হচ্ছে । বালখ ও ফারিয়াব প্রদেশে তুষারপাতে মারা গেছে প্রায় দশ হাজার গবাদি পশু।

সার-ই-পুলের বাসিন্দা আব্দুল কাদির উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছেন, ‘খুব ভারী তুষারপাত চলছে। মানুষজন তাদের গবাদি পশুর ক্ষতির কারণে উদ্বিগ্ন। অনেক রাস্তাতেই ভারী তুষারপাতের কারণে চলাচলের অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে।’ স্থানীয় আরেক বাসিন্দা আমানুল্লাহ এমন দুর্যোগ পরিস্থিতিতে সরকারি সহায়তার দাবি জানিয়ে বলেন, ‘যারা আটকা পড়েছে তাদের ক্ষুধার্ত গবাদি পশুদের জরুরি সহায়তা প্রয়োজন।’

এদিকে এমন পরিস্থিতিতে আফগানিস্তান সরকার বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সমন্বয়ে একটি কমিটি গঠনের ঘোষণা দিয়েছে। এই কমিটি গবাদি পশুর মালিকদের ক্ষতি মোকাবিলায় বিশেষভাবে কাজ করবে। এছাড়া বলখ, জাওজান, বাদঘিস, ফারিয়াব এবং হেরাত প্রদেশে ক্ষতিগ্রস্ত গবাদি পশুর মালিকদের জন্য পাঁচ কোটি আফগানি বরাদ্দ করেছে আফগান সরকার।

আফগান রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির মুখপাত্র এরফানুল্লাহ শরাফজয়ী জানান, তাদের কর্মীরা ইতিমধ্যেই বাদঘিস, ঘোর, ফারাহ, কান্দাহার, হেলমান্দ, জাওজান এবং নুরিস্তানের মতো প্রদেশে তুষারপাতের কারণে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা প্রদান করেছে।

তীব্র তুষারপাতের ফলে সালাং গিরিপথসহ আফগানিস্তানের অনেক প্রধান পরিবহন রুট বন্ধ হয়ে গেছে। এ কারণে ঘোর, বাদঘিস, গজনি, হেরাত এবং বামিয়ানের মতো বিভিন্ন প্রদেশে ঢোকা যাচ্ছে না। আফগান গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মোহাম্মদ আশরাফ হকসেনাস রাস্তা বন্ধ হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সর্বশেষ