আগৈলঝাড়ায় স্বাস্থ্যকার্ড দেওয়ার নামে টাকা গ্রহণ করায় দুই ফিল্ড এ্যাসিস্ট্যান্ট চাকুরীচ্যূত

অপূর্ব লাল সরকার, আগৈলঝাড়া (বরিশাল) থেকে : বরিশালের আগৈলঝাড়ায় ৯ হাজার ৪ শ’ ৬৩টি পরিবারকে স্বাস্থ্য সুরক্ষা কর্মসূচির (এসএসকে) স্বাস্থ্যকার্ড দেওয়ার নামে উঠানো টাকা বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর ফেরৎ দেয়া হয়েছে। এঘটনায় অভিযুক্ত দুই ফিল্ড এ্যাসিস্ট্যান্টকে চাকুরীচ্যূত করা হয়েছে।
জানা গেছে, ২০২৩ সালের ২৬ ডিসেম্বর দারিদ্র সীমার নিচে বসবাসকারী পরিবারের নিবন্ধন ও তালিকাভুক্তি সম্পন্ন করতে উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে ১০জন ফিল্ড এ্যাসিস্ট্যান্ট নিয়োগ দেয় স্বাস্থ্য সুরক্ষা কর্মসূচি। উপজেলার দারিদ্রসীমার নীচে বসবাসকারী পরিবারের তথ্য সংগ্রহ ও স্বাস্থ্যকার্ড দেয়ার নামে ৫০ টাকা করে নেওয়ার অভিযোগ উঠে তাদের বিরুদ্ধে। এ সংক্রান্ত একটি সংবাদ বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত হলে উর্ধতন কর্মকর্তাদের টনক নড়ে। কর্মকর্তারা ঘটনার তদন্ত করে সত্যতা পাওয়ায় গ্রহণকৃত টাকা ফেরৎ দেওয়া হয়েছে।
ওই ঘটনার সাথে জড়িত স্বাস্থ্য সুরক্ষা কর্মসূচির ফিল্ড এ্যাসিস্ট্যান্ট সৈকত মধু ও কবিতা খানমকে চাকুরীচ্যূত করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন স্বাস্থ্য সুরক্ষা কর্মসূচির (এসএসকে) প্রোগ্রাম কর্মকর্তা নাজমুল হক। এব্যাপারে তিনি সাংবাদিকদের জানান, ঘটনার তদন্ত করে সত্যতা পেয়ে দুইজনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণসহ কার্ডধারীদের টাকা ফেরৎ দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. বখতিয়ার আল মামুন জানান, স্বাস্থ্য সুরক্ষা কর্মসূচির (এসএসকে) আওতায় বিভিন্ন পরিবারকে স্বাস্থ্যকার্ড দেওয়ার নামে টাকা নেয়ার ঘটনা আমি উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানিয়েছি। তারা ঘটনার তদন্ত করে গ্রহণকৃত টাকা ফেরৎ এবং দুইজনকে চাকুরী থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে বলে জেনেছি।

সর্বশেষ