ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ২ পক্ষের সংঘর্ষ,আহত অর্ধশতাধিক

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে পূর্ব বিরোধের জেরে দুই পক্ষের মাঝে সংঘর্ষে অন্তত অর্ধশতাধিক লোক আহত হয়েছে। বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে উপজেলার হরষপুর ইউনিয়নের বুল্লা গ্রামে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষ চলাকালীন সময়ে বেশকিছু বাড়িঘরে হামলা ও ভাংচুরের শিকার হয়।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানায়, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন পরবর্তী বিরোধ নিয়ে স্থানীয় নোয়াব আলী গোষ্ঠীর সাথে কাউসার মেম্বার গোষ্ঠী, হাজী গোষ্ঠী, মাইঝ গাঁও গোষ্ঠীসহ অন্তত ৭ টি গোষ্ঠীর সাথে বিরোধ চলে আসছিল। পাশাপাশি
গত ৬ মাস পূর্বে কাউসার মেম্বারের মেয়ে নোয়াব আলী গোষ্ঠীর আব্দুল আহাদের ছেলে মহসীনের সাথে পালিয়ে যায়। এ নিয়ে তাদের মধ্যে আবারো বিরোধ দেখা দেয়।

এরই জের ধরে বুধবার উভয় গোষ্ঠীর লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় কাউসার মেম্বারের গোষ্ঠীর পক্ষে হাজী গোষ্ঠী, মাইঝ গাঁও গোষ্ঠীসহ অন্তত ৭ টি গোষ্ঠী সংঘর্ষে জড়িয়ে যায়। এ সময় উভয় পক্ষের অন্তত অর্ধশত লোকজন আহত হয়। পরে আহতদের জেলার সদর হাসপাতালসহ একাধিক প্রাইভেট ক্লিনিক গুলোতে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

এবিষয়ে জানতে চাইলে বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি)মোঃ আসাদুল ইসলাম বলেন, একটি মেয়ে সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে দীর্ঘ দিন যাবৎ উভয় পক্ষের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে তারা বুধবার দুপুরে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ফের সংঘর্ষ এড়াতে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সর্বশেষ