ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ডিবি পরিচয়ে অপহরণ চক্রের মূলহোতাসহ গ্রেফতার ৬

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:

ব্রাহ্মনবাড়িয়ার সুলতানপুরে ডিবি পরিচয়ে অপহরণ করে অর্থ আদায় চক্রের মূলহোতাসহ ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-৯।

বৃহস্পতিবার (০৪ জানুয়ারি) সদর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত অপহরণকারীরা হলেন, সদর থানাধীন সুলতানপুর এলাকার শেখ অবুজ (২৫), হৃদয় মিয়া (২৩), শেখ অবুজ (২৮), মোঃ আওয়াল মিয়া(৪০), এবং কান্দিপাড়া এলাকার পিয়াস মিয়া (৩০) ও শিপন মিয়া (২৮)।

গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে
র‍্যাব-৯ সিলেট এর সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ মশিহুর রহমান (সোহেল) জানান, গত ৩০ ডিসেম্বর শনিবার দুপুর অনুমানিক ১ টার দিকে (ভিকটিম) মোঃ দেলোয়ার মিয়া (২৩) ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সুলতানপুর চৌধুরী মার্কেট হতে বেকারীর মালামাল তৈরি করার জন্য পিকআপ ভ্যানে ২০ বস্তা চিনিসহ ভাদুঘর এলাকার ভিআইপি বেকারীর দিকে যাওয়ার পথে, সুলতানপুর বড় মসজিদের রাস্তার উপর পৌঁছালে ৬ জন ব্যক্তি ৩টি মোটরসাইকেল যোগে এসে ভিকটিম দেলোয়ার মিয়ার পিকআপ গাড়ীর গতিরোধ করে নিজেদের ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে কৌশলে পিকআপসহ ভিকটিম দেলোয়ার মিয়াকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এবং দেলোয়ার মিয়াকে মারধর ও অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে তার নিকট থাকা নগদ ৫০ হাজার টাকা জোরপূর্বক ছিনিয়ে নেয়। পরবর্তিতে আবারও বিকাশের মাধ্যমে আরো ৩৯ হাজার ২২০ টাকা হাতিয়ে নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

পরে এই ঘটনায় ভিকটিম দেলোয়ারের ভগ্নীপতি বোরহান উদ্দিন (৫৫) বাদী হয়ে গত ০২ জানুয়ারি মঙ্গলবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানায় সরকারি কর্মচারি পরিচয়ে অপহরণ পূর্বক অর্থ আদায়কারীদের বিরুদ্ধে পেনাল কোডে একটি মামলা দায়ের করেন।

অপরদিকে অপহরণেরর ঘটনাটি তাৎক্ষনিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ দেশব্যাপী ব্যাপক আলোচিত হয়। এরই প্রেক্ষিতে আসামীদের আইনের আওতায় আনতে র‍্যাব-৯ ছায়া তদন্ত এবং গোয়েন্দা তৎপরতা জোরদার করে।

বৃহস্পতিবার (০৪ জানুয়ারি) গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-৯, ব্রাহ্মণবাড়িয়া কোম্পানির একটি দল, জেলার সদর থানার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে মামলার ১নং আসামী শেখ অবুজসহ অপহরণকারী চক্রের ৬ সদস্যকে গ্রেফতার করে সদর থানায় হস্তান্তর করেন। তিনি আরো জানান, গ্রেফতারকৃত আসামীদের নামে ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ দেশের বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।

সর্বশেষ