ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে কিশোরীর আত্মহত্যা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ

ব্রাহ্মনবাড়িয়ার আখাউড়ায় পরিবারের সঙ্গে অভিমান করে গলায় ফাঁসি দিয়ে শারমিন আক্তার (১৭) নামে এক কলেজ ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। রোববার (২৮ জানুয়ারি ) সকালে উপজেলার দক্ষিন ইউনিয়নের আব্দুল্লাহপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শারমিন আক্তার আব্দুল্লাহপুর গ্রামের মোঃ ইউনুছ মিয়ার কন্যা। এবং আখাউড়া শহীদ স্মৃতি সরকারী কলেজের ছাত্রী।

সুত্রে জানা যায়,পরিবারের লোকজনের সাথে অভিমান করে নিজ বসতঘরের তীরের সাথে গলায় ফাঁস দেয় শারমিন। পরে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জহির উদ্দিন শারমিনকে মৃত ঘোষণা করেন। প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত শারমিনের মৃতদেহ আখাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে রয়েছে।

আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূরে আলম শারমিনের ফাঁস দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিতত জানান, প্রাথমিক ভাবে জানা গেছে শারমিন কলেজে যাওয়াকে কেন্দ্র করে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তবে মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের প্রতিবেদন হাতে পেলে মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে।

সর্বশেষ