বর্ষসেরা ওয়ানডে ক্রিকেটারের মনোনয়নে চারজনের তিনজনই ভারতের

ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) ২০২৩ সালের বর্ষসেরা ওয়ানডে ক্রিকেটারের মনোনয়ন তালিকায় চারজনের তিনজনই ভারতের। অন্যজন নিউজিল্যান্ডের।
ভারতের বিরাট কোহলি, শুভমান গিল ও মোহাম্মদ সামির সাথে আছেন নিউজিল্যান্ডের ড্যারিল মিচেল।
পুরুষের পাশাপাশি আজ গেল বছরের বর্ষসেরা নারী ওয়ানডে ক্রিকেটারের মনোনয়ন তালিকাও প্রকাশ করে আইসিসি।
বর্ষসেরা নারী ওয়ানডে ক্রিকেটারের মনোনয়নে আছেন অস্ট্রেলিয়ার অ্যাশলে গার্ডনার, শ্রীলংকার চামারি আতাপাত্তু, ইংল্যান্ডের স্কিভার-ব্রান্ট ও নিউজিল্যান্ডের অ্যামেলিয়া কের।
গেল বছর ঘরের মাঠে ওয়ানডে বিশ^কাপে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন কোহলি। ১১ ইনিংসে ব্যাট করে ৭৬৫ রান করেন তিনি। যা বিশ্বকাপ ইতিহাসে এক আসরে সর্বোচ্চ রানের বিশ^ রেকর্ড। বিশ্বকাপে ১১ ইনিংসের মধ্যে ৯ ইনিংসেই পঞ্চাশোর্ধ রানের রেকর্ড গড়েন কোহলি। এছাড়া বিশ^কাপের মঞ্চে ওয়ানডে ইতিহাসে স্বদেশি শচীন টেন্ডুলকারের সর্বোচ্চ ৪৯ ওয়ানডে শতকের রেকর্ডও ভেঙে ৫০ সেঞ্চুরির মালিক হন কোহলি।
গেল বছর ভারতের হয়ে টেস্টেও সবচেয়ে বেশি রানের মালিক ছিলেন কোহালি। ৮ টেস্টে ২টি করে শতক ও অর্ধশতকে ৬৭১ রান করেন তিনি। এছাড়া ২৭ ওয়ানডেতে ৬টি সেঞ্চুরি ও ৮টি হাফ-সেঞ্চুরিতে ১৩৭৭ রান করেন এই ব্যাটার। কিন্তু গেল বছর কোন টি-টোয়েন্টি খেলেননি কোহলি।
গত বছর ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ রানের মালিক ছিলেন গিল। ২৯ ম্যাচে ৫টি সেঞ্চুরি ও ৯টি হাফ-সেঞ্চুরিতে ১৫৮৪ রান করেছেন তিনি। পাশাপাশি ৬ টেস্টে ২৫৮ রান ও ১৩ টি-টোয়েন্টিতে ৩১২ রান করেছেন গিল।
সর্বশেষ ওয়ানডে বিশ^কাপে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী ছিলেন ভারতের সামি। ৭ ম্যাচে ২৪ উইকেট নেন তিনি। গেল বছর সর্বমোট ১৯ ওয়ানডেতে ৪৩ উইকেট শিকার করেছিলেন সামি। উইকেট শিকার তালিকায় তৃতীয়স্থানে ছিলেন সামি। ৪ টেস্টে ১৩ উইকেট শিকার করলেও কোন টি-টোয়েন্টি খেলেননি তিনি।
ভারতীয়দের পারফরমেন্সের ভিড়ে সেরার দৌড়ে সুযোগ পেয়েছেন মিচেলও। গেল বছর ৭ টেস্টে ৪৬৯ রান, ২৬ ওয়ানডেতে ১২০৪ রান ও ১৮ টি-টোয়েন্টিতে ৩১৬ রান করেছেন তিনি। টেস্টে ১টি ও ওয়ানডেতে ৫টি সেঞ্চুরি করেন মিচেল। এর মধ্যে বিশ্বকাপে ৫৫২ রান করেছিলেন এই ডান হাতি ব্যাটার।

সর্বশেষ