প্রধানমন্ত্রীর সফর উপলক্ষে কোটালীপাড়ায় উৎসবের আমেজ

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় সভা উপলক্ষে তাঁর নির্বাচনী এলাকা গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় বইছে উৎসবের আমেজ। উপজেলা সদরসহ আশপাশের এলাকা তোরণ, ব্যানার, ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে। রাস্তার দু‘পাশ লাল নীল, সবুজ হলুদসহ বর্ণিল পতাকা দিয়ে সাজানো হয়েছে। নেতা কর্মীদের মধ্যে ব্যাপক উদ্দিপনা সৃষ্টি হয়েছে এবং এলাকায় উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। প্রধানমন্ত্রীকে দেখতে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষ। আজ রোববার কোটালীপাড়া উপজেলা পরিষদ চত্বরে শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হবে।
দুপুরে টুঙ্গিপাড়ার বাসভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী সড়ক পথে কোটালীপাড়া যাবেন। সেখানে উপজেলায় আওয়ামী লীগ আয়োজিত শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় সভায় ভাষণ দেবেন।
উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। নির্মাণ করা করা হয়েছে মঞ্চ ও বিশাল প্যান্ডেল। সভাস্থলসহ আশপাশের এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করেছে আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা।
সভার প্যান্ডেলে ২ হাজার নেতা-কর্মীর বসার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আয়নাল হোসেন শেখ।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী তাঁর নির্বাচনী আসন গোপালগঞ্জ-৩ (কোটালীপাড়া-টুঙ্গিপাড়া) আসন থেকে বিপুল ভোটে ৮ম বারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। আমরা তাঁকে শুভেচ্ছা জানাতে ঢাকায় যেতে চেয়েছিলাম। তখন আমাদের প্রাণপ্রিয় নেত্রী বলেছেন, ‘তোমাদের ঢাকা আসতে হবে না, আমিই তোমাদেরকে শুভেচ্ছা জানাতে কোটালীপাড়া ও টুঙ্গিপাড়ায় আসবো’। এ জন্য তিনি আজ রোববার কোটালীপাড়ায় আসছেন। তাকে স্বাগত জানাতে আমরা প্রস্তুত। প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর তাঁকে একনজর দেখতে ও মুখের কথা শুনতে আমরা মুখিয়ে রয়েছি।
আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা পঞ্চম বারের মতো প্রধানমন্ত্রী হয়ে শনিবার দুপুর ১২ টায় টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। পরে নতুন মন্ত্রী পরিষদের সদস্যদের সাথে নিয়ে জাতির পিতার সমাধিসৌধের বেদীতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এ সময় ছাট বোন শেখ রেহানা ও পরিবারের সদস্যরা তাঁর সাথে ছিলেন।
এরআগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে সড়ক পথে পদ্মাসেতু হয়ে দু’ দিনের সরকারি সফরে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া আসেন। ৫ম বার প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর এটিই ঢাকার বাইরে তার প্রথম সফর। দুপুরে সরকার প্রধান টুঙ্গিপাড়ার নিজ বাসভনে মন্ত্রী পরিষদের অনানুষ্ঠানিক সভায় যোগ দেন। বিকালে তিনি টুঙ্গিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে দলীয় নেতা-কর্মী, জনপ্রতিনিধি ও সুধীজনদের সাথে শুভেচ্ছা এবং মতবিনিময় সভা করেন। সেখানে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। শনিবার রাতে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা টুঙ্গিপাড়ার নিজ বাসভবনে অবস্থান করেন।
এর আগে গত ৩০ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে নিজ নিবর্কাচনী এলাকার কোটালীপাড়া শেখ লুৎফর রহমান আদর্শ সরকারি কলেজ মাঠে নির্বাচনী জনসভায় ভাষন দিয়েছিলেন। নির্বাচনী জনসভাটি জন সমুদ্রে পরিণত হয়।

সর্বশেষ