নৌকার ভোটারদের কেন্দ্রে প্রবেশ করতে বাধা দেন ইউপি চেয়ারম্যান, ভিডিও ভাইরাল

মনোহরদী (নরসিংদী) প্রতিনিধি :

নরসিংদীর মনোহরদীতে গত ৭ই জানুয়ারী অনুষ্ঠিত  দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে নৌকার ভোটারদের কেন্দ্রে প্রবেশ করতে বাধা দেওয়ার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।
ভিডিওতে দেখা গেছে উপজেলার শুকুন্দী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছাদিকুর রহমান শামিম তার দুই ভাই শাহীন ও সুমনকে সাথে নিয়ে নৌকায় ভোট দিতে আসা ভোটারদেরকে কেন্দ্র থেকে বের করে দিতে।

এসময় চেয়ারম্যান তার কর্মীদের উদ্দেশ্য  করে বলতে শোনা গেছে এই তরা এনো খাড়ো।নৌকার একটা লোককেও ভিতরে ঢুকতে দিবিনা। ভোট ঈগলে দিতে হবে।পরে তার দুই ভাই ও তার কর্মীরা মিলে নৌকার ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে থেকে বের করে দেন।এই ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে পুরো উপজেলা জুড়ে নিন্দার ঝড় উঠে।
ঘটনাটি ঘটে শুকুন্দী ইউনিয়নের  ৬নং ওয়ার্ডে।এই ওয়ার্ডের ভোটার ওই অভিযুক্ত চেয়ারম্যান।
জানা যায় গত দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে নরসিংদী-৪ (মনোহরদী বেলাব)আসনে নৌকা প্রতিকে নির্বাচন করেন শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন। নৌকার  বিরুদ্ধে সতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করেন সাইফুল ইসলাম খান বীরু।
ইউপি চেয়ারম্যান শামিম তার দুই ভাই ও অনুসারীদের নিয়ে সতন্ত্র প্রার্থী  ঈগল প্রতিকের নির্বাচন করেন ।তার পছন্দের প্রার্থীকে জয়ী করতেই চেয়ারম্যান এই ঘটনা ঘটান বলে দাবি করছেন এলাকাবাসী।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজনের সাথে কথা বললে জানা যায়,ছাদিকুর রহমান শামিম দুই দুই বার নৌকা প্রতিক নিয়ে শুকুন্দী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।তিনি এখনো এই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান। দীর্ঘদিন যাবত তিনি এই ইউনিয়নের আ,লীগের সভাপতি পদে ও রয়েছে।এছাড়াও তিনি বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতিসহ অন্যান্য   দায়িত্ব পালন করে আসছেন।এই ইউনিয়নে আ,লীগ করে চেয়ারম্যান পরিবার যে পরিমান সুবিধা ভোগ করেছে,তা অন্য কোন আ,লীগ নেতা এত সুবিধা পায়নি।তার মত লোক নৌকার বিরোধিতা করা ঠিক হয়নি।

ভাইরাল হওয়া ভিডিও,র বিষয়ে  ইউপি চেয়ারম্যান ছাদিকুর রহমান শামিম বলেন, এসব ভিডিও সুপার এডিট করা। আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র।

সর্বশেষ