চুয়াডাঙ্গায় বয়ে যাচ্ছে মৃদু শৈত্য প্রবাহ

তীব্র ঠাণ্ডা আর ঘন কুয়াশায় বিপর্যস্ত পুরো দেশ। জনজীবনে দুর্ভোগ বাড়াচ্ছে মাঘের হাড়কাঁপানো শীতের ভেতর বৃষ্টি। শীতের মধ্যে দেশের কিছু এলাকায় বৃষ্টির খবর পাওয়া গেছে। যা জনজীবন আরও বিপর্যস্ত করে তুলেছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ছয়টা থেকে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার জন্য যে পূর্বাভাস আবহাওয়া অফিস দিয়েছে তাতে প্রথম দিন পাঁচ বিভাগে বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা জানানো হয়েছে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, উপমহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ বিহার পর্যন্ত বিস্তৃত। লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসের প্রথম দিনের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার (১৮ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ছয়টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় খুলনা, বরিশাল, রাজশাহী, ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের দু-এক জায়গায় বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারাদেশের কোথাও কোথাও মাঝারী থেকে ঘনকুয়াশা পড়তে পারে এবং এটি কোথাও কোথাও দুপুর পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে। কুয়াশার কারণে বিমান চলাচল, অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন এবং সড়ক যোগাযোগ সাময়িকভাবে বিঘ্ন ঘটতে পারে।

শৈত্যপ্রবাহ নিয়ে পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, কিশোরগঞ্জ ও নওগাঁ জেলাসহ রংপুর বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।

এদিকে শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ছয়টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকবে।

রাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারাদেশে মাঝারী থেকে ঘনকুয়াশা পড়তে পারে এবং এটি কোথাও কোথাও দুপুর পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে। কুয়াশার কারণে বিমান চলাচল, অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন এবং সড়ক যোগাযোগ সাময়িকভাবে বিঘ্ন ঘটতে পারে। সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা এক থেকে দুই ডিগ্রি সেলসিয়াস হ্রাস পেতে পারে। এবং দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে।

এছাড়া ২০ জানুয়ারি সন্ধ্যা ছয়টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকবে।

রাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারাদেশে মাঝারী থেকে ঘনকুয়াশা পড়তে পারে এবং এটি কোথাও কোথাও দুপুর পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে। কুয়াশার কারণে বিমান চলাচল, অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন এবং সড়ক যোগাযোগ সাময়িকভাবে বিঘ্ন ঘটতে পারে। সারাদেশে রাত ও দিনের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে।

সর্বশেষ