ছন্দহীন লিটন-শান্ত বাকি ওপেনারদের পারফরম্যান্স কি

আকাশ দাশ সৈকত বিপিএলের চলতি আসরে খুব একটা ভালো সময় যাচ্ছে না বাংলাদেশী ওপেনারদের ব্যাটে। বিশেষ করে দেশসেরা তামিম ইকবাল অথবা বর্তমান দুই তারকা ওপেনার লিটন কুমার দাশ এবং নাজমুল হোসেন শান্ত বিপিএলে নেই ছন্দে। অন্যদিকে গত আসরে মাঠ মাতানো রনি তালুকদারকে তো অফফর্মের কারণেই একাদশের বাইরে রেখে দিলো রংপুর রাইডার্স! বর্তমান বাংলাদেশ জাতীয় টি-টোয়েন্টি দলের দুই ওপেনার লিটন কুমার দাশ এবং রনি তালুকদার। কিংবা যদি আপনি জাতীয় দলের টপ থ্রি বলেন তাহলে নাজমুল হাসান শান্তর নামটাই আসবেই অনায়সে। কারণ তাদের উপর টিম ম্যানেজমেন্টর ভরসাটা ছিলো প্রখর। তবে নিজেরাই দেখালেন ভিন্ন রূপ দুইজনই হতাশ করেছেন নিজ দলকেও সেইসাথে ভক্তদেরও। ৪ ম্যাচে ৮ গড় আর ৮৭ স্ট্রাইক রেটে লিটনের রান ৩৫ আর শান্তর ৫ ম্যাচে ১৩ গড় আর ৯৪ স্ট্রাইক রেটে ৬৯ রান৷ টি-২০ দল থেকে বাদ পড়া মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ যেখানে কাপাচ্ছেন সেখানে দেশের দুই ফাইনেস্ট ব্যাটার লিটন-শান্ত উইকেটে কাপছেন। এইদিকে শুরুর দিকে ব্যাট হাতে খারাপ সময় গেলেও ব্যাট হাতে চট্টগ্রামের হয়ে শেষ ম্যাচে অর্ধশতক হাঁকিয়েছেন তরুণ তানজিদ তামিম। অন্যদিকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলে দেওয়া তামিম ইকবাল বিপিএলের শুরুতে ছন্দে থাকলেও শেষ কয়েকম্যাচে ফিরেছেন অল্প রানে! এছাড়া বিপিএলের চলতি আসরে ব্যাট হাতে ছন্দে আছেন খুলনার অধিনায়ক এনামুল হক বিজয় নেতৃত্বের সাথে সাথে ব্যাট হাতেও ওপেনিংয়ে নেমে চিরচেনা রূপে এই উইকেটকিপার ব্যাটার। তাছাড়া দল ভালো না করতে পারলেও ব্যাট হাতে দারুণ খেলছেন দুর্দান্ত ঢাকার ওপেনার নাইম শেখ। টুর্নামেন্টের চার ম্যাচের একটা জয় নিয়ে তালিকায় ছয়ে থাকলেও ওপেনিংয়ে নেমে প্রতিনিয়ত ঝড় তুলছেন নাইম। দেশি ওপেনারদের ভীড়ে সবচেয়ে বেশি আলোচনায় বিদেশীরা। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের হয়ে আভিস্কা তুলছেন ঝড় তাছাড়া আছেন এখন পর্যন্ত টুর্নামেন্টের সেরা রান সংগ্রাহকের তালিকায় সেরা পাঁচে। দীর্ঘদিন পর বিপিএল খেলতে নেমে সাবেক পাকিস্তানি অধিনায়ক মাত্র ৪ ম্যাচে ব্যাট করে ১৫৭ রান নিয়ে আছে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় চার নম্বরে।

সর্বশেষ