কোটালীপাড়ায় গীর্জার জমি দখলের চেষ্টা, বাধা দেওয়ায় হামলা

জেমস বাড়ৈ : কোটালীপাড়া প্রতিনিধি।

গোপলগঞ্জের কোটালীপাড়ায় খ্রীষ্ঠান ধর্মালম্বীদের গীর্জার জমি জোর করে দখলের চেষ্টাচালানোকালে বাধা দেওয়ায় দুইজনকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করেছে প্রতিপক্ষরা। মঙ্গলবার উপজেলার কান্দি ইউনিয়নের চার্চ অফ বাংলাদেশের সাধু লুকের গীর্জার সদস্যরা হামলার শিকার হয়। এই ঘটনায় কোটালীপাড়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

ভূক্তভোগী ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, কান্দি ইউনিয়নের কান্দি গ্রামে অবস্থিত সাধু লুকের চার্চের নামে ক্রয়কৃত জমিতে চার্চের মন্ডলী ২৫ বছর যাবৎ চাষাবাদ করে আসছে কিন্তু বিগত কিছুদিন থেকে চার্চের এক সদস্য ধারাবাশাইল গ্রামের মৃত সমূয়েল বৈরাগীর ছেলে বিভূদান বৈরাগী (৬০) জমিটা অবৈধভাবে দখল করার পায়তারা চালিয়ে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার বিভূদান ওই জমিতে গোপনে ধানের চারা রোপণ করতে আসলে চার্চের সদস্য বিধান হালদার(৫৫) বাধা দিলে দখলকারী বিভূদান বৈরাগী , তার স্ত্রী সারা বৈরাগী (৫০) ,দুই মেয়ে লিন্ডা বৈরাগী ও মিডিয়া বৈরাগী এবং পাশর্^বর্তী পূনবর্তী গ্রামের ভাড়াটে মাসুদ হাওলাদার একসাথে বিধান হালদারের উপরে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আতর্কিত হামলা চালিয়ে কুপিয়ে জখম করে এসময়ে বিধানের ভাইয়ের স্ত্রী লেয়া পপি হালদার এগিয়ে এলে তাকেও মারাত্মাক জখম করে হামলাকারীরা। স্থানীয়রা চিৎকার শুনে মুমূর্ষু অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে প্রথমে কোটালীপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরবর্তীতে উন্নত চিকিৎসার জন্য গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।
এই ঘটনায় সাধু লূকের চার্চের সম্পাদক আন্ড্রিও হালদার বাদী হয়ে কোটালীপাড়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।
কোটালীপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ফিরোজ আলম বলেন, জমি নিয়ে বিরোধের জেরে হামলার ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত অনুযায়ী ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

সর্বশেষ