আমিরকন্যার বিয়ের রিসেপশনে থাকছেন ২৫০০ অতিথি
উদয়পুরে সম্পন্ন হয়েছে বিয়ের রাজকীয় অনুষ্ঠান। আজ দিল্লিতে বিবাহোত্তর সংবর্ধনা। মেয়ে ইরার বিয়ের রিসেপশনে কোনো কমতি রাখছেন না বলিউড মেগাস্টার আমির খান। আয়োজনে হাজির থাকছেন ভারতের হাই প্রোফাইল সব ব্যক্তিরা। আজ শনিবার (১৩ই জানুয়ারি) মুম্বাইয়ে মেয়ে ইরা ও জামাই নুপূরের জন্য গ্র্যান্ড রিসেপশন আয়োজন করছেন আমির। খানদের মধ্যে প্রথম তারকা হিসাবে জামাই ঘরে আনলেন মিস্টার পারফেকশনিস্ট। আমিরের মেয়ের রিসেপশনে আমন্ত্রিতের সংখ্যা ২৫০০ জন। শাহরুখ খান, সালমান খানের পরিবার-সহ কাপুর খানদান, দেওল পরিবার এবং আম্বানিদের নিমন্ত্রণ করেছেন আমির।রিসেপশনের ভেনু হতে চলেছে আম্বানিদের নীতা মুকেশ আম্বানি কালচাব়্যাল সেন্টার।

জানা গেছে, আমন্ত্রিতদের জন্য খাবারের বিরাট আয়োজন করা হয়েছে। দেশের ৯টি রাজ্যের বিশেষ খাবার থাকছে তালিকায়। যার মধ্যে রয়েছে গুজরাটি কুসিন, মহারাষ্ট্রীয়ান ও লখনউভি খাবার।ব্যক্তিগতভাবে মেয়ের বিয়ের সংবধর্নায় সকলকে সামিল হওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন আমির।

মুম্বাইয়ে গত ৩ জানুয়ারি আইনিভাবে বিয়ে সেরেছিলেন ইরা খান ও নূপুর শিখরে। তারপর উদয়পুরে খ্রিস্টান রীতিমেনে ডেস্টিনেশন বিয়ে সম্পন্ন হয়। মেহেদি, সংগীতেই আটকে থাকেনি ইরার প্রাক-বিয়ের অনুষ্ঠান। পাজামা পার্টি করেছেন বর-কনে। এরপর গত বুধবার রাতে হোয়াইট ওয়েডিং সারলেন ইরা-নূপুর। মেয়ের বিয়েতে কেঁদে ফেলেছিলেন আমির। এরপর নাচে-গানে মাতিয়ে দিয়েছিলেন আসর।

আমির খান এবং তাঁর প্রথম স্ত্রী রিনা দত্তের মেয়ে ইরা খান। আমির এবং রিনা প্রায় পনেরো বছর দাম্পত্য জীবন কাটিয়েছেন। তারপর তাঁদের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। মায়ের কাছে বড় হলেও বাবা আমির ও সৎ মা কিরণের সঙ্গে বরাবরই দারুণ সম্পর্ক ইরার। নিজের প্রেম নিয়ে কোনওদিন রাখঢাক রাখেননি ইরা। আমিরের ফিটনেস কোচের সঙ্গে ইরার প্রেম নিয়ে কম চর্চা হয়নি। তবে বরাবর পরস্পরকে আগলে রেখেছেন দুজনে। ২০২২ সালের সেপ্টেম্বর মাসে আংটি বদল সেরেছিলেন ইরা-নুপূর। অবশেষে বিয়ের পিঁড়িতে বসলেন দুজন।

সূত্র: কালেরকন্ঠ

সর্বশেষ