নিজের স্বপ্নের কথা জানালেন প্রধানমন্ত্রী

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার স্বপ্নের কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, তার স্বপ্ন ছিল প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষক হওয়া।  রোববার সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পাঠ্যবই বিতরণ অনুষ্ঠানে বক্তব্যকালে সরকারপ্রধান নিজের এ স্বপ্নের কথা জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, শিক্ষিত জাতি ছাড়া একটা দেশ দারিদ্র্যমুক্ত হয় না। এজন্য আমরা শিক্ষাকে সবথেকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছি এবং বাজেটেও বেশি বরাদ্দ রাখি। এছাড়া শিক্ষাকে বহুমুখী করা হচ্ছে। উচ্চ শিক্ষাকেও আমরা বিভিন্ন জেলায় বিশ্ববিদ্যালয় করে দিয়ে সেখানে বহুমুখী শিক্ষার ব্যবস্থা করে দিয়েছি। যেখানে বিজ্ঞান, স্বাস্থ্য বিজ্ঞান, কৃষি, এভিয়েশনসহ সব ক্ষেত্রে শিক্ষার ব্যবস্থা করে দিয়েছি।

আজকের ছেলে-মেয়েরাই আমার মতো প্রধানমন্ত্রী হবে, ভালো শিক্ষক হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমার জীবনের স্বপ্ন ছিল শিক্ষক হবার। তাও আবার প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষক। সেটি হতে চাচ্ছিলাম। কিন্তু শেষ পর্যন্ত আর তা হয়ে উঠেনি। কারণ আমার বাবা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এই বাংলাদেশের কথা বললেই তখনকার সরকার তাকে গ্রেফতার করতো, জেলে নিয়ে যেতো। এতে বার বার আমাদের পড়াশোনায় বাধা হতো। শেখ হাসিনা বলেন, যখন আমি মাস্টার্সে পড়তে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি, তখনই ’৭৫-এ আমার বাবা-মাসহ সবাইকে মেরে ফেলা হয়। তখন আমি, আমার ছোট বোন ছিলাম দেশের বাইরে। তখন ছোট বোনেরও পরীক্ষা ছিল। আমরা আর তখন দেশে আসতে পারিনি। কারণ তখন যারা সরকারে ছিল তারা আমাদের আসতে দেয়নি।

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মণির সভাপতিত্বে আয়োজিত নতুন বই বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন। এতে স্বাগত বক্তব্য দেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

সূত্র: যুগান্তর

সর্বশেষ