নারীরা মাদকাসক্ত হলে সমাজের সকলেই ক্ষতিগ্রস্থ হয়

তরিকুল ইসলাম, নিজস্ব প্রতিনিধি:

নারীরা ক্ষতিগ্রস্থ হলে সমাজের সকলেই ক্ষতিগ্রস্থ হয়। একটা নারীর থেকে তার পরিবার বা সমাজের অনেক আশা থাকে। আর যদি নারী মাদকে আসক্ত হয়ে পড়ে তাহলে একটি পরিবারের সমস্ত স্বপ্ন নষ্ট হয়ে যায়। তাই সব সময় নারীদেরকে মাদকাসক্ত থেকে দূরে রাখতে হবে। রবিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) বিকেল সাড়ে ৩ টায় রাজধানীর শ্যামলীস্থ ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন স্বাস্থ্য সেক্টরের সভাকক্ষে নারীদের চিকিৎসা পরবর্তী পুনর্বাসনের উদ্দেশ্যে ভোকেশনাল ট্রেনিং কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অতিথিরা এসব কথা বলেন।

সমাজের নারীদের মাদকমুক্ত করার পাশাপাশি সমাজের মূল ধারায় তারা যাতে সুস্থ স্বাভাবিক জীবন যাপন করে নিজেদেরকে প্রতিষ্ঠিত করতে পারে সেই লক্ষ্যে ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন স্বাস্থ্য সেক্টরের সহযোগিতায় আহ্ছানিয়া মিশন নারী মাদকাসক্তি চিকিৎসা ও পূনর্বাসন কেন্দ্রের আয়োজনে আগামী ১ অক্টোবর থেকে শুরু হয়ে নিয়মিতভাবে এই কার্যক্রম চলতে থাকবে। যার মধ্যে রয়েছে রান্না কোর্স (কনফেকশনারী ও চাইনিজ আইটেম) এবং ব্যবসা ব্যবস্থাপনা প্রশিক্ষণ।

উক্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিচালক (চিকিৎসা ও পুনর্বাসন) ও (অতিরিক্ত দায়িত্ব, নিরোধ শিক্ষা, গবেষণা ও প্রকাশনা অধিশাখা) মোঃ মাসুদ হোসেন। এসময় তিনি বলেন, নারীদের মাদকা আসক্তে জড়িয়ে না পড়ে তা থেকে দূরে থাকতে হবে। আর যারা মাদকাসক্তই জড়িয়ে পড়েছেন তাদের উচিৎ চিকিৎসা নিয়ে অন্ধকার জগৎ থেকে আলোর পথে ফিরে আসা। তিনি আরোও বলেন, আহ্ছানিয়া মিশন নারী মাদকাসক্তি চিকিৎসা ও পূনর্বাসন কেন্দ্রের আজকের এই উদ্যেগটি একটি প্রশংসিত আয়োজন। আমি আশা করবো এখান থেকে যারা চিকিৎসা নিয়ে ঘরে ফিরবেন তাদের আর এখানে যেন না ফিরতে হয়। আমি মনে করি আজকের এই আয়োজন হয়তো অতি ক্ষুদ্র কিন্তু আমার কাছে মনে হচ্ছে এটা মাদকাসক্তি থেকে ফিরে আসা নারীদের জন্য পুনর্বাসনের জন্য অনেক বড় একটি সুযোগ।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কার্যালয় ঢাকা মেট্রো (দক্ষিণ) অতিরিক্ত পরিচালক মোঃ মজিবুর রহমান পাটোয়ারী। মাদকাসক্তি থেকে ফিরে আসা নারীদের জন্য ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন যে উদ্যেগ নিয়েছে তাকে তিনি সাধুবাদ জানিয়ে তিনি বলেন পুর্ন আসক্তির মাত্রা অনেকাংশে কমিয়ে আনা সম্ভব। মাদকাসক্তি থেকে সবাইকে দূরে রাখতে এই ধরণের উদ্যেগের প্রতি গুরুত্ব দেয়ার জন্য ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনকে অনুরোধ জানান।

উক্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন স্বাস্থ্য ও ওয়াশ সেক্টরের পরিচালক ইকবাল মাসুদ। এসময় তিনি বলেন, আমাদের স্ব-উদ্যেগে এই আয়োজনটি ক্ষুদ্র কিন্তু উদ্যেগটা মহৎ। আমার নারীদের স্বাবলম্বী করার জন্য অনেক উদ্যেগ নিয়েছি। এছাড়াও নারী মাদকাসক্তিদের চিকিৎসার জন্য সকল সুযোগ সুবিধাসহ বড় কেন্দ্র স্থাপন করবে ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন।

এসময় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের ভোকেশনাল ট্রেনিংয়ের টিম লিডার মোঃ আব্দুস সাদিক, প্রশিক্ষক রুমানা রহমান, ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন স্বাস্থ্য সেক্টরের উপ-পরিচালক মোখলেছুর রহমান, সহকারী পরিচালক (মেডিকেল সার্ভিসেস) ডাঃ নায়লা পারভীন, প্রকল্প ব্যবস্থাপক মাহফিদা দীনা রুবাইয়া, প্রকল্প সমন্বয়কারী শারমিন রহমান, প্রকল্প সমন্বয়কারী শরিফুল ইসলাম, প্রকল্প সমন্বয়কারী শাহেদুল হক, সিনিয়র সাইক্লোজিস্ট রাখী গাঙ্গুলী, আহ্ছানিয়া মিশন নারী মাদকাসক্তি চিকিৎসা ও পূনর্বাসন কেন্দ্রের কেন্দ্র ব্যবস্থাপক ফারজানা ফেরদৌসসহ অন্যান্য কর্মকর্তাগন।

সর্বশেষ