প্রেমিকার বিয়ের সংবাদে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে এক কলেজ ছাত্রের আত্মহত্যা

মেহেদী হাসান শাহীন, স্টাফ রিপোর্টারঃ

প্রেমিকার বিয়ের ৬ দিন পর ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে আত্মহত্যা করলেন এক কলেজ ছাত্র।

গাজীপুর ইউনিয়নের নিজমাওনা গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে এবং শ্রীপুরের একটি কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী রনির মরদেহ শনিবার (১৪ জানুয়ারি) সকাল ৭ টার দিকে নিজ ঘর থেকে উদ্ধার করা হয়।

প্রসঙ্গ, নিহত রনি আহমেদ (১৯) শ্রীপুরের একটি কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিলেন। প্রেমিকার বিয়ে হয়ে যাওয়ায় অভিমানে ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

জানা যায়, গ্রামের এক মেয়ের সঙ্গে কিছুদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলছিল রনির। ৬ জানুয়ারি ওই মেয়ের অন্য জায়গায় বিয়ে হয়ে যায়। এরপর থেকে রনি হতাশায় ভুগছিলেন। শুক্রবার রাতে রনি তার রুমে ঘুমিয়ে পড়েন। শনিবার ভোরে ঘুম থেকে না ওঠায় সন্দেহ হয়। এরপর দরজা ভেঙে ভেতরে গিয়ে ঘরের পাইরের সাথে গামছায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় তাকে পাওয়া যায়।

প্রেমিকার বিয়ে হয়ে যাওয়ায় রনি অভিমান করে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এর আগে শুক্রবার (১৩ জানুয়ারি) রাতে রনি তার এক ফেসবুক পোস্টে লিখেন, আর কখনো কারো কাছে কিছু চাইবো না। সবাই ভালো থাইকেন। আর আমার জন্য দোয়া কইরেন। আর হয়তো কোনো পোস্ট করা হবে না।

শ্রীপুর থানার নিজমাওনা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. মিন্টু মিয়া বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

সর্বশেষ