সারা বাংলাদেশ একদিকে আর আওয়ামীলীগ একদিকে : শামা ওবায়েদ

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:
বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ বলেছেন, বিএনপি’র আন্দোলনই; এখন জনগনের আন্দোলন। সারা বাংলাদেশ একদিকে আর আওয়ামীলীগ একদিকে। আওয়ামীলীগ প্রতিহিংসার রাজনীতি করে। অন্যদিকে, বিএনপি প্রতিহিংসার রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না। এটাই বিএনপি; এটাই জনগণের দল।

তিনি আরও বলেন, বর্তমান সরকার মিথ্যাচারের মাধ্যমে ক্ষমতায় ঠিকে আছে। সরকারের লুটপাট ও দুর্নীতির কারণে দেশের অবস্থা ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। ভেঙ্গে পড়েছে অর্থনৈতিক অবস্থা। তাই বর্তমান সরকারের জুলুম, নির্যাতন ও অত্যাচারের হাত থেকে দেশের জনগণকে রক্ষা করতে হবে। এজন্য বিএনপির সকল নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে হবে। আর এই সরকারের সময় ফুরিয়ে এসেছে। ফুঁসে উঠছে জনগণ। অচিরেই এ সরকারের বিদায় ঘণ্টা বেজে উঠবে।

সোমবার (৯ জানুয়ারী) বিকেলে ধানুকা এলাকায় শরীয়তপুর জেলা বিএনপি’র আয়োজনে অনুষ্ঠিত “বিএনপি ঘোষিত আন্দোলনের ১০ দফা এবং রাষ্ট্র কাঠামো মেরামতের রূপরেখা বিষয়ে ব্যাখ্যা ও বিশ্লেষনধর্মী আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শরীয়তপুর জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক, সাবেক এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা সরদার একেএম নাসির উদ্দীন কালু’র সভাপতিত্বে ও কার্যকরী সহ-সভাপতি শাহ মো. আব্দুস সালামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন, বিএনপি’র স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ রফিকুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন, বিএনপি’র সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক খন্দকার মাশুকুর রহমান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, যুবদলের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা মজিবুর রহমান, শরীয়তপুর জেলা বিএনপি’র সহ-সভাপতি আবুল হোসেন সরদার, বিএম হারুন অর রশীদ, যুগ্ম সম্পাদক মাহবুব মোর্শেদ টিপু, দপ্তর এ্যাড. কামরুল হাসান, শরীয়তপুর সদর উপজেলার সভাপতি সিরাজুল হক মোল্যা, পৌরসভার সভাপতি এ্যাড. লুৎফর রহমান, যুবনেতা এ্যাড. মৃধা নজরুল কবির, আজাদ মাল, ছাত্রনেতা পান্থ তালুকদার সহ জেলা বিএনপি ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ।

পরে বেগম খালেদা জিয়া’র মুক্তি এবং তারেক রহমান ও ডাঃ জোবাইদা রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা এবং সম্পত্তি ক্রোকের আদেশের প্রতিবাদে ধানুকা এলাকায় বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সর্বশেষ