‘হ্যারি, আপনি যাদের হত্যা করেছেন তারা দাবার গুটি ছিল না, মানুষ ছিল’

ব্রিটেনের বর্তমান রাজার ছেলে হ্যারি আফগানিস্তানে ২৫ জনকে হত্যার কথা স্বীকার করার পর এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে তালেবান।তালেবানের প্রভাবশালী নেতা আনাস হাক্কানি বলেছেন, হ্যারি যে সময় হত্যাকাণ্ড ঘটানোর কথা বলেছেন, সেই সময় তালেবানের কেউই নিহত হননি। খবর আলজাজিরার।আলজাজিরা টিভিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি আরও বলেছেন, ‘আমরা যাচাই করে দেখেছি, প্রিন্স হ্যারি যে দিনগুলোতে ২৫ মুজাহিদিনকে (তালেবান সদস্য) হত্যার কথা উল্লেখ করেছেন, সেই দিনগুলোতে হেলমান্দে আমাদের কেউ মারা যাননি। এটি স্পষ্ট যে বেসামরিক ও সাধারণ মানুষকে হত্যা করা হয়েছে।’

প্রিন্স হ্যারির আত্মজীবনীর মলাটের একটি ছবি টুইটারে পোস্ট করে তিনি লেখেন— ‘হ্যারি, আপনি যাদের হত্যা করেছেন, তারা দাবার গুটি ছিল না, মানুষ ছিল।
তাদের পরিবার ছিল, যারা তাদের জন্য অপেক্ষা করত। আফগানিস্তানে যারা হত্যাকাণ্ড চালিয়েছিল, তাদের মধ্যে অনেকেরই আপনার মতো যুদ্ধাপরাধের কথা স্বীকার করার মতো শিষ্টাচার নেই।’

তিনি আফগানিস্তানে যুদ্ধাপরাধের জন্য ব্রিটিশ ঘাতকদের বিচার দাবি করেন। ২০ বছরের সামরিক দখলদারির পর মার্কিন নেতৃত্বাধীন ন্যাটো বাহিনী ২০২১ সালে আফগানিস্তান ছেড়েছে।

এই দখলদারত্বের একটা পর্যায়ে ব্রিটিশ প্রিন্স হ্যারি আগ্রাসী বাহিনীর সামরিক হেলিকপ্টারের পাইলট হিসেবে আফগানিস্তানে যান এবং ব্যাপক হত্যাযজ্ঞ চালান। তিনি তার আত্মজীবনীতে ২৫ জনকে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন। আফগানিস্তানে মার্কিন ও ব্রিটিশ বাহিনীসহ বিদেশিরা যাদের হত্যা করেছে, তাদের একটা বড় অংশই ছিল বেসামরিক মানুষ। তারা বিয়েবাড়িতে আনন্দ উল্লাসের শব্দে ভীত-সন্ত্রস্ত হেলিকপ্টারের সাহায্যে বোমা ফেলত এবং এর ফলে বর-কনে ও শিশুসহ অসংখ্য মানুষ নিহত হতো।

মার্কিন নেতৃত্বাধীন আগ্রাসনের সময় বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরগুলো পড়লেই এর প্রমাণ পাওয়া যায়।

সূত্র: যুগান্তর

সর্বশেষ