প্রচন্ড শীতে কুমিল্লায় জনজীবনে স্থবিরতা

পৌষের শেষে প্রচন্ড শীতে কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলায় জনজীবনের স্থবিরতা নেমে এসেছে। ঘন কুয়াশা আর উত্তরের হিমেল বাতাসে শীতের তীব্রতা আরো বাড়িয়ে দিয়েছে। প্রচন্ড শীতের কারণে রাস্তাঘাট একেবারে ফাঁকা, বিশেষ প্রয়োজন ব্যতীত কেউ বাড়ির বাইরে বের হচ্ছে না। কিছু কিছু দোকানপাট খোলা থাকলেও সেরকমভাবে কাস্টমার দোকানে আসছে না। এখন বোরো ধান আবাদ করার জন্য জমি প্রস্তুত করা ও ধানের চারা রোপণের সময়। কিন্তু শীতের কারণে কৃষকরা মাঠে নামতে পারছেনা। উপজেলার বড়ধুশিয়া গ্রামের কৃষক মোজ্জাম্মেল হোসেন বাসসকে বলেন, জমি প্রস্তুুত করে রেখেছি চারা রোপণ করার জন্য প্রচন্ড শীতের কারণে কাজের লোক পাওয়া যাচ্ছে না। গতকাল দুপুর ২টায় দিকে কিছু সময়ের জন্য সূর্যের দেখা মিললেও শীতের তীব্রতা কমছে না।
কয়েকদিন ধরে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ডায়রিয়া, নিউমোনিয়া, শ্বাসকষ্টসহ ঠান্ডাজনিত নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছে শিশু ও বয়স্করা। এ ব্যপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আবু হাসনাত মুবিন বাসসকে বলেন, প্রচন্ড ঠান্ডায় রোটা ভাইরাসের প্রভাবে শিশু ও বৃদ্ধদের মধ্যে ডায়রিয়া ও শ্বাসকষ্ট জনিত রোগের প্রকোপ অনেক বেড়ে গেছে তাই শিশুদের তরতাজা ও গরম খাবার খাওয়ার জন্য পরামর্শ দিয়েছেন এবং গরম কাপড় পরিধান ও বিনা প্রয়োজনে ঘরের বাহিরে না যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

সর্বশেষ