শীতে বাড়ছে নিউমোনিয়া-ডায়রিয়া রোগী

মধ্য পৌষে এসে উত্তরের জনপদ গাইবান্ধার প্রত্যন্ত অঞ্চলে শীতের তীব্রতা বেড়েই চলেছে। কনকনে শীতে যবুথবু হয়ে পড়ছে বয়স্ক ও শিশুরা। আর এই ঠান্ডার কবলে অনেকেই আক্রান্ত হচ্ছেন শ্বাসকষ্ট, নিউমোনিয়া ও ডায়রিয়ার মতো রোগে।

গাইবান্ধা সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা যায়, শীতজনিত রোগীদের ভর্তি ও চিকিৎসাসেবা নেওয়ার চিত্র। হাসপাতালগুলোতে আসা অধিকাংশ রোগী ডায়রিয়া, শ্বাসকষ্ট ও নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত।

ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্তদের সুস্থ করে তুলতে পরিবারের সদস্যরা নিচ্ছেন পল্লী চিকিৎসকের কাছে, আবার কেউ কেউ বিভিন্ন হাসপাতাল, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ক্লিনিকে ছুটছেন।

ফুলছড়ি উপজেলার চরের বাসিন্দা আমজাদ হোসেন বলেন, গরিব পরিবারের শ্রমজীবী মানুষ আমরা। অতি ঠান্ডায় আমার মেয়ে মনিরা খাতুন (৮) শ্বাসকষ্টে ভুগছে। মেয়েকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দিচ্ছি।’

গাইবান্ধা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মেডিকেল অফিসার ডা. রাফিউল আলম বলেন, ‘সম্প্রতি শীতের তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় ডায়রিয়া, শ্বাসকষ্ট ও নিউমোনিয়া রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। এখনো প্রায় ৬০-৭০ জন রোগী আমাদের হাসপাতালে ভর্তি আছেন। তাদের যত্নসহকারে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এছাড়াও শতাধিক রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।’

সর্বশেষ