বিচ্ছেদের ইঙ্গিত দিয়ে পরীমনির ফেইসবুক পোস্ট

 

‘রাজকে আমার জীবন থেকে ছুটি দিলাম’, মাঝরাতের পোস্টে লেখেন ঢাকার চলচ্চিত্রের এ অভিনেত্রী।

শফিকুল রাজ ও পরীমনি।

বছরের আলোচিত তারকা জুটি পরীমনি ও শরিফুল রাজের সম্পর্কে ভাঙনের সুর প্রকাশ্যে আনলেন পরীমনি নিজেই।

শুক্রবার মাঝরাতে সংসার ভাঙার ইঙ্গিত দিয়ে ফেইসবুকে এক পোস্ট দিয়েছেন ঢাকার চলচ্চিত্রের এ নায়িকা।

নিজের ফেইসবুক আইডিতে রাত ১২টা ৪৩ মিনিটে দেওয়া এ পোস্টে পরীমনি লেখেন, “হ্যাপি থার্টিফার্স্ট এভরিওয়ান!

“আমি আজ রাজকে আমার জীবন থেকে ছুটি দিয়ে দিলাম এবং নিজেকেও মুক্ত করলাম একটা অসুস্থ সম্পর্ক থেকে। জীবনে সুস্থ হয়ে বেঁচে থাকার থেকে জরুরী আর কিছুই নেই।”

এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে পরীমনির সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার সাড়া পাওয়া যায়নি।

রাজের ফোন নম্বরও বন্ধ পাওয়া যায়। হোয়াটসঅ্যাপ ও ফেইসবুকে ম্যাসেঞ্জারে বার্তা দিয়েও এ বিষয়ে উত্তর মেলেনি।

বিচ্ছেদের ইঙ্গিত দিয়ে পরীমনির ফেইসবুক পোস্ট

এ চিত্রনায়িকার পোস্টটি মুহূর্তেই ছড়িয়ে যায় ফেইসবুকে। ৫৫ মিনিটের মাথায় আট শতাধিক শেয়ারের পাশাপাশি প্রায় পাঁচ হাজার ৭০০ রিয়্যাক্ট দেখা যায় সেখানে। ভক্তদের অনেক মন্তব্যও এসেছে; পরামর্শও দিয়েছেন অনেকে।

পরীমনি ও রাজের মধ্যে বেশ কয়েকদিন থেকেই সম্পর্কে টানাপড়েন চলছিল। কিছুদিন আগে এ চিত্রনায়িকাই ফেইসবুক পোস্টের মাধ্যমে তা সামনে এনেছিলেন।

তিনি অভিনেত্রী বিদ্যা সিনহা মিমের সঙ্গে রাজকে জড়িয়ে ফেইসবুকে পোস্ট দিয়ে উষ্মা প্রকাশ করেন। তাদের দুজনের দীর্ঘ ফোনালাপ নিয়ে অনেক কথা বলেন।

পরীমনি সেসময় ‘এসব বন্ধ করো’ আর্তি জানিয়ে রাজ ও মিমের উদ্দেশ্যেও পোস্ট দিয়েছিলেন।

তখন থেকে রাজ-মিমের প্রেম ও পরীর সংসারে ভাঙনের গুজব ছড়াতে থাকে।

পরাণ ও দামাল সিনেমায় রাজের নায়িকা ছিলেন মিম। দামাল সিনেমা মুক্তির সময় রাজ ও মিমকে মেনশন করে পোস্ট দেন পরী। তখন বিষয়টি নিয়ে বেশ আলোচনাও হয়।

শুক্রবার রাতে পরীমনির পোস্টের পর ভক্তদের অনেকেই ঘটনা জানতে চান।

কেউ রাজ্য’র কথা মাথায় রেখে নতুন করে ভাবার পরামর্শ দেন। কেউবা “জীবনে সুস্থ হয়ে বেঁচে থাকার থেকে জরুরী আর কিছুই নেই” লাইনটার প্রশংসা করেন।

অভিনেত্রী এলিনা শাম্মী মিনতি জানানোর ইমো দিয়ে কমেন্টে লিখেছেন, “মাথা ঠান্ডা রাখো বোন… আরেকটু ভেবে দেখার সুযোগ থাকলে, একটু ভাবো, তোমার রাজ্যর জন্য হলেও।”

সেদিন হঠাৎ পরীমনি ফেইসবুকে জানান, তিনি মা হতে চলেছেন। সন্তানের বাবা অভিনেতা শরিফুল রাজ। ১৭ অক্টোবর পারিবারিক আয়োজনে তাদের বিয়ে হয়েছে। চলচ্চিত্র অঙ্গণে এ নিয়ে অনেক আলোচনাও হয়; মামলায় জড়িয়ে খবরের শিরোনাম হওয়ার মধ্যে বছরের আলোচিত বিয়েও ছিল সেটি।

বিচ্ছেদের ইঙ্গিত দিয়ে পরীমনির ফেইসবুক পোস্ট

গিয়াস উদ্দিন সেলিম পরিচালিত গুণিন সিনেমার শুটিংয়ে প্রেম ও প্রণয় পরী-রাজ জুটির। গত ১০ আগস্ট পরীর ঘরে জন্ম নেয় পূত্র সন্তান। বাবার নামের সঙ্গে মিলিয়ে পরী সন্তানের নাম রাখেন ‘শাহীম মুহাম্মদ রাজ্য।’

নড়াইলের মেয়ে শামসুন্নাহার স্মৃতি পরীমনি নাম নিয়ে ঢাকাই চলচ্চিত্রে নাম লিখিয়েই তারকা বনে গিয়েছিলেন। ২০১৩ সালে প্রথম সিনেমা ‘ভালোবাসা সীমাহীন’ মুক্তির আগেই অন্তত ২০টি চলচ্চিত্রে চুক্তিবদ্ধ হয়ে তোলেন আলোড়ন।

সর্বশেষ