শীতের ভরা মৌসুমেও সবজির দাম চড়া

শীতের ভরা মৌসুমেও সবজির দাম চড়া

 

তবে সবজির দাম বাড়ার পেছনে কুয়াশাকে দায়ী করেন কারওয়ান বাজার কাঁচামাল আড়ত ব্যবসায়ী মালিক সমিতির সভাপতি মোক্তার হোসেন। তিনি বলেন, কয়েক দিন ধরে বেশি কুয়াশা পড়ছে। এতে নির্ধারিত সময়ে পণ্যবাহী ট্রাক রওনা করতে পারছে না। সে কারণে ঢাকায় তুলনামূলক পণ্য কম আসছে। এর প্রভাব পড়েছে দামে।

বাজার ঘুরে দেখা গেল, প্রতিটি ফুলকপি ৩৫ থেকে ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। বাঁধাকপিও একই দামে কিনতে হচ্ছে ক্রেতাদের। মুলা প্রতি কেজি ২০ টাকা, বেগুন ৪০ থেকে ৫০ টাকা, নতুন আলু ৩০ টাকা, গাজর ৫০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। ঢ্যাঁড়স, করলা ও পটোলের দাম কিছুটা বেড়েছে।

ব্রয়লার মুগরির দামও বেড়েছে। গতকাল শেওড়াপাড়া বাজারে প্রতি কেজি ব্রয়লার বিক্রি হয় ১৫৫ টাকায়। অর্থাৎ এক মাসের ব্যবধানে কেজিতে বেড়েছে ১৫ টাকা। দেশি মুরগির দাম কেজিতে ২০ টাকা বেড়ে হয়েছে ৪৪০ টাকা। এক সপ্তাহ আগে সোনালিকা মুরগির কেজি ছিল ২৩০ টাকা, যা গতকাল বিক্রি হয়েছে ২৫০ টাকায়।

কারওয়ান বাজারের ব্যবসায়ী জুয়েল মোল্লা বলেন, শীতকালে মুরগির বাচ্চা নষ্ট হয়। এ কারণে সরবরাহ কমে গেছে। তাই দাম বেড়েছে।

ইলিশের দামও কিছুটা বাড়তির দিকে। তবে রুই ও তেলাপিয়ার দাম কিছুটা কমেছে। প্রতি কেজি রুই আগের সপ্তাহে ৩০০ টাকায় বিক্রি হলেও গতকাল ২৮০ টাকায় বিক্রি হতে দেখা গেছে। ২০ টাকা কমে তেলাপিয়া বিক্রি হয়েছে প্রতি কেজি ১৮০ টাকায়।

শেওড়াপাড়া বাজারের মাছ ব্যবসায়ী কামাল মিয়া বলেন, মাছের সরবরাহ বেশি। সে জন্য দাম কিছুটা কমেছে।

সর্বশেষ