ইউক্রেন প্রস্তাব না মানলে সেনাবাহিনী সিদ্ধান্ত নেবে, রাশিয়ার আল্টিমেটাম

ইউক্রেন প্রস্তাব না মানলে সেনাবাহিনী সিদ্ধান্ত নেবে, রাশিয়ার আল্টিমেটাম

যুদ্ধ বন্ধে আলোচনার ব্যাপারে পুতিনের আশাবাদ ব্যক্তের পর এবার ইউক্রেনকে সরাসরি আল্টিমেটাম দিল রাশিয়া। দেশটি জানিয়েছে, প্রস্তাব না মানলে রুশ সেনাবাহিনীই এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে।

সোমবার রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ ইউক্রেনের প্রতি আল্টিমেটাম দেন। তিনি বলেন, “বেসামরিকীকরণ ও নাৎসিবাদ থেকে বেরিয়ে আসতে রাশিয়ার প্রস্তাব কিয়েভ ভালো করেই জানে। এই প্রস্তাব বাস্তবায়ন করার দায়িত্ব ইউক্রেন সরকারের। অন্যথায় রাশিয়ার সেনাবাহিনীই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে।”

লাভরভ আরও বলেন, “ইউক্রেনে রাশিয়ার নিয়ন্ত্রিত এলাকাগুলোতে বেসামরিকীকরণ ও নাৎসিবাদমুক্ত করতে প্রস্তাব দিয়েছি আমরা।এসব এলাকায় রাশিয়ার জন্য যা হুমকিস্বরূপ, তা দূর করতেই এই পদক্ষেপ দরকার বলে মনে করেন তিনি।

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “কথা খুব সহজ। নিজেদের ভালোর জন্য ইউক্রেনকে প্রস্তাব মেনে নিতে হবে, তা না হলে এই ইস্যুতে রাশিয়ার সেনাবাহিনী সিদ্ধান্ত নেবে।এদিকে, রাশিয়ার দক্ষিণাঞ্চলে অ্যাঙ্গেলস বোমারু বিমানঘাঁটিতে ইউক্রেনের ছোড়া একটি ড্রোনের আঘাতে তিনজন নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে রাশিয়ার। দেশটির প্রতিরক্ষাবাহিনী সোমবার এই দাবি করে।

তবে এর আগের দিন রবিবার বড়দিনে ইউক্রেনের বেশ কয়েকটি শহরে বোমা ও রকেট হামলা চালায় রুশ বাহিনী। বড়দিনে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, তিনি আলোচনার জন্য প্রস্তুত। তবে পশ্চিমারা এতে সাড়া দেয়নি। এরপর ওই দিনই হামলা বাড়িয়েছে রাশিয়া।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের দেশ ইউক্রেনে ‘বিশেষ সামরিক অভিযান’ চালাচ্ছে রাশিয়া। এরই মধ্যে ১০ মাস পেরিয়ে গেছে এই যুদ্ধের। দীর্ঘ এই যুদ্ধে ইউক্রেনের বেশ কয়েকটি অঞ্চল দখলে নিয়েছে রাশিয়া। তবে ওই অঞ্চলগুলো উদ্ধারে জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ইউক্রেনীয় বাহিনী। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ পশ্চিমা দেশগুলোর অস্ত্র ও আর্থিক সহায়তায় যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে ইউক্রেন।

সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন

সর্বশেষ