‘এনার্জেটিক একাডেমি’র যাত্রা শুরু

স্টাফ রিপোর্টার

শীর্ষস্থানীয় অনলাইন শিক্ষা-বিষয়ক প্ল্যাটফর্ম ই স্কুল অব লাইফ’র সহযোগিতায় ‘এনার্জেটিক একাডেমি’র উন্মোচন করলো এনার্জিপ্যাক পাওয়ার জেনারেশন লিমিটেড (ইপিজিএল)। আজ (২২ ডিসেম্বর) এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের মাধ্যমে একাডেমিটির উদ্বোধন করা হয়। একাডেমিতে সর্বোচ্চ চাহিদাসম্পন্ন বিভিন্ন অনলাইন ট্রেনিং কোর্স করার সুযোগ থাকবে।

এনার্জেটিক একাডেমির উদ্দেশ্য প্রকৌশল খাত ও একই সাথে দেশের জন্য দক্ষ মানব সম্পদ তৈরি করা। শিক্ষার্থীদের অনলাইন প্রশিক্ষণের মাধ্যমে আগামীর জন্য প্রস্তুত করবে এনার্জেটিক একাডেমি; আর এই অনলাইন লার্নিং প্ল্যাটফর্মটির প্রযুক্তিগত দিকগুলোর দেখভাল করবে ‘ই-স্কুল অব লাইফ’। অংশগ্রহণকারীরা নিজের জন্য উপযোগী পাঠ্যক্রমের মাধ্যমে প্রকৌশল খাতের বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে জ্ঞান অর্জন করার বিস্তৃত সুযোগ পাবেন।

এনার্জেটিক একাডেমি টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রায় (এসডিজি) অন্তর্ভূক্ত মানসম্মত শিক্ষা, কর্মসংস্থান ও অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির মতো লক্ষ্যগুলো অর্জনে অবদান রাখতে আগ্রহী। বিশেষ করে প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, অপারেটর, টেকনিশিয়ান ও সার্ভিস ম্যানেজার হিসেবে কর্মরত ব্যক্তিরা এই উদ্যোগ থেকে উপকৃত হবেন। এই উদ্যোগে প্রশিক্ষক হিসেবে নিজেদের দক্ষ কর্মী, প্রদর্শনের জন্য নিজস্ব মেশিনারি এবং ট্রেনিং কোর্সের জন্য লেকচার প্রস্তুত করা সহ নিজস্ব সক্ষমতা ব্যবহার করবে এনার্জিপ্যাক।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) কেমিকেল অ্যান্ড ম্যাটেরিয়ালস ইঞ্জিনিয়ারিং ফ্যাকাল্টির ডিন অধ্যাপক মোহাম্মদ তামিম। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন গ্লোকাল লার্নিং ম্যানেজমেন্ট লিমিটেডের প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আতিক উল্লাহ মাসুদ। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন এনার্জিপ্যাক পাওয়ার জেনারেশন লিমিটেডের সিইও ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক, সিআইপি (কমার্শিয়ালি ইম্পর্ট্যান্ট পার্সন) হুমায়ুন রশিদ এবং অন্যান্যরা।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) এর কেমিকেল অ্যান্ড ম্যাটেরিয়ালস ইঞ্জিনিয়ারিং ফ্যাকাল্টির ডিন অধ্যাপক মোহাম্মদ তামিম বলেন, “বর্তমানে ডিজিটাল ট্রান্সফরমেশন এর মাধ্যমে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। প্রতিযোগিতার এই যুগে সবার জন্য বাস্তবমুখী শিক্ষার সুযোগ তৈরি ও জ্ঞানের বিকাশ ঘটাতে কাজ করবে এনার্জেটিক একাডেমি। এরকম একটি ভালো উদ্যোগ গ্রহণ করায় এনার্জেটিক একাডেমির পাশাপাশি এনার্জিপ্যা জন্য শুভকামনা।”

এনার্জিপ্যাকের সিইও ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক হুমায়ুন রশিদ বলেন, ‘এনার্জেটিক একাডেমি এনার্জিপ্যাকের নিজস্ব উদ্যোগ। এর উদ্দেশ্য পাওয়ার জেনারেশন ও অন্যান্য প্রযুক্তিগত বিষয়গুলোতে জ্ঞান অর্জনের সুযোগ তৈরি করা এবং এমন দক্ষ জনশক্তি তৈরি করা, যারা সহজেই চাকরির বাজারে প্রবেশ করতে পারবে। শিক্ষার্থীরা এনার্জিপ্যাকে কর্মরত এমন প্রকৌশল বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে শিখতে পারবে এবং ব্যবহারিক জ্ঞান অর্জনের সুযোগ পাবেন।’

সর্বশেষ