আমার গাল মোটা- না কে কী বলল এসব নিয়ে মাথা ঘামাই না : ভাবনা

আশনা হাবিব ভাবনা, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা কারণে আলোচনায় থাকেন। তবে এই আলোচনায় থাকাটা কতটা উপভোগ করেন তিনি, নাকি কাজ নিয়ে আলোচনায় থাকতে ভালোবাসেন? জানা গেল, ভাবনা মোটেও উপভোগ করেন না যদি সেই আলোচনা নেতিবাচক অর্থে হয়।

অভিনেত্রী বললেন, ‘আমার কাজ অভিনয় করা, আমি অভিনয় নিয়েই আলোচনায় থাকতে পছন্দ করি। আপনার যেটা কাজ সেটা করেই তো আনন্দ পাবেন নাকি?’

এক প্রশ্নের জবাবে ভাবনা বলেন, ‘যেখানে আপনার প্রশ্ন বলতেই ঝামেলা হচ্ছে, সেখানে আমি কিভাবে আনন্দ পেতে পারি? আমি এসব কটু কথায় ভীষণ কষ্ট পাই, এখানে তো আনন্দ পাওয়ার কিছু নেই।

যেখানে আপনি প্রশ্ন করতেই অস্বস্তি বোধ করছেন, সেখানে আমি আনন্দ পেতে পারি না।  আমি ভীষণ ভীষণ রকমের কষ্ট পাই, কিন্তু দমে যাই না।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাবনার পোশাক নিয়ে সমালোচনা করা হয়, কটু কথা বলা হয়। নেতিবাচক অর্থে শরীর ও স্বাস্থ্য নিয়েও কথা বলা হয়- এমনটাই বলতে চাইছিলেন একজন গণমাধ্যমকর্মী। তার জবাবেই ভাবনা এসব বলেন।

বুধবার রাতে রাজধানীর লেকশোর হোটেলে ‘এক্সকিউজ মি’ নামের নতুন একটি সিনেমার মহরত অনুষ্ঠিত হয়। এই সিনেমায় ভাবনার সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করবেন জিয়াউল রোশান। সেখানেই ভাবনা নানা প্রশ্নের উত্তর দিতে মুখোমুখি হন।

ভাবনা একই প্রশ্নের রেশ ধরে বলেন, ‘আর সবচেয়ে বড় কথা- আমার গাল মোটা নাকি আমি মোটা, সেসব নিয়ে আমি একদম ভাবতে পছন্দ করি না। অভিনয় নিয়ে আমি এত ব্যস্ত থাকি যে আমি এসব নিয়ে ভাবতেই চাই না। আমি মনে করি, একজন অভিনয়শিল্পী হিসেবে আমাদের অনেক কাজ করা দরকার। তাহলে অন্য বিষয় নিয়ে কেন মাথাব্যথা থাকবে?’

নেতিবাচক মন্তব্যে মানুষ হিসেবে খারাপ লাগবে জানিয়ে ভাবনা বলেন, ‘আমাদের অভিনয় নিয়ে অনেক কর্মশালা করতে হয়, অভিনয়ের পূর্বের অনেক কাজ রয়েছে। কে আমাকে নিয়ে বাজে কথা লিখল, কে আমাকে নিয়ে সমালোচনা করল- এসব যদি আমি দেখতে যাই, তাহলে এত সময় চলে যাবে যে পরের দিন আমি ঘুম থেকেই উঠতে পারব না। কাঁদতে কাঁদতেই দিন চলে যাবে। সো ওসব আমার দেখার সময় নেই। ওসব নিয়ে কেউই আমরা মাথা ঘামাই না, কিন্তু মানুষ হিসেবে ডেফিনেটলি আমাদের খারাপ লাগবে, যেহেতু বোধশক্তি আছে।

বাবা আহসান হাবিব একজন নির্মাতা হওয়ায় বিশেষ কোনো সুবিধা পান কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে ভাবনা বলেন, আমার বাবা একজন নির্মাতা। তিনি কিন্তু প্রডিউসার নন। তাঁর সঙ্গে আমার কাজই করা হয়নি। এখানে তাঁর কাছ থেকে সুবিধা পাওয়ার কোনো প্রশ্নই আসে না। যদি তিনি অর্থ লগ্নি করতে পারেন, তাহলে হয়তো আমার জন্য কিছু করলেও করতে পারতেন।

‘এক্সকিউজ মি’ চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করছেন রায়হান খান।   শিগগিরই এর শুটিং শুরু হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে।

সূত্র: কালেরকন্ঠ

সর্বশেষ