হাকিম জিয়াচ মানবতার ফেরিওয়ালা!

আকাশ দাশ/ক্রীড়া প্রতিবেদক মানুষ বাঁচে তার কর্মের বয়সে নয়! এমন প্রবাদ বাক্যকে সত্য প্রমাণ করেছে অনেকে আবার অনেকে মানবতার মধ্যদিয়ে উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করে গিয়েছে বিশ্ববাসীর মনে। জায়গা করে নিয়েছে সেরাদের অন্তরে এবার সেই জায়গায় আপনি মরক্কোর নাম্বার সেভেন হাকিম জিয়াচকে রাখতে বাধ্য…. কাতারে অনূষ্ঠিত বিশ্বকাপের চলতি আসরের পর্দা নেমেছে ইতিমধ্যেই। যেখানে শক্তিশালী ফ্রান্সকে টাইব্রেকারে ৪-২ গোলে হারিয়ে তৃতীয়বারের মতো বিশ্বকাপের শিরোপা ঘরে তুললো আর্জেন্টিনা। তবে বিশ্বকাপ শেষ হলেও রয়ে গেছে রেশটি।

যেখানে সবচেয়ে বেশী আলোচনা হচ্ছে চমক হিসেবে বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল খেলা আফ্রিকান দেশ মরক্কোকে নিয়ে। যে দলের অন্যতম সেরা তারকা হাকিম জিয়াচ। মাঠে কিংবা মাঠের বাইরে এই তারকা মহানূভবতা অবাক করেছিলো সকলকে। এবার তাকে নিয়ে নতুন এক খবর দিলো জিয়াচের স্বদেশী সাংবাদিক খালিদ বেদৌন। জানিয়েছেন জিয়াচ জাতীয় দল থেকে পাওয়া সমস্থ অর্থ ব্যয় করেন দেশের ফুটবলের সাথে জড়িত ব্যক্তি এবং দেশের গরিব আর অসহায় মানুষদের কল্যাণে… চলতি বিশ্বকাপে মরক্কো সেমিফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করায় হাকিম জিয়াচ পাচ্ছেন বোনাস বাবদ ৩ লাখ ২৫ হাজার ডলার। যার সবটুকু দেশের আর মানবতার কল্যাণে খরচ করবেন বলে জানিয়েছেন মরক্কোর নাম্বার সেভেন। ২০১৫ সালে জাতীয় দলে অভিষেক ঘটা হাকিম এখন পর্যন্ত আফ্রিকান সিংহদের হয়ে খেলেছেন ৪৭টি ম্যাচ যেখানে গোল করেছে ১৯টি। তবে বছরের শুরুতে পুরনো কোচের সাথে অভিমান করে আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় জানিয়ে দিয়েছিলেন।

তবে নতুন কোচের হাত ধরে আবার নতুন রুপে ফিরে এসেছে হাকিম। এই যেন আসলেন দেখলেন আর জয় করলেন….. জিয়াচ চাইলে খেলতে পারতেন কমলা রঙের জার্সি গায়ে মাঠে নামা ডাচদের হয়ে। যেই দলটির হয়ে তিনে খেলেছিলেন একাধিক বয়সভিত্তিক দলে। তবে জাতীয় দলের খেলার জন্য নিজের দেশটাকে বেচে নিলেন এই আয়াক্স মিডফিল্ডার। হয়তো নতুন কোচ গল্প লিখবে বলে মানবতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করবে বলে…..

সর্বশেষ