যুদ্ধ শুরুর পর প্রথমবার ইউক্রেন ছাড়লেন জেলেনস্কি

রাশিয়ার আক্রমণ শুরুর ৩০০ দিন পর প্রথমবারের মতো বিদেশ সফরে যাচ্ছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার (২১ ডিসেম্বর) যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে দেখা করার পাশাপাশি মার্কিন কংগ্রেসে ভাষণ দিতে ওয়াশিংটনের পথে রওয়ানা হয়েছেন জেলেনস্কি।

আমেরিকান রাজনীতিবিদ ও হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি এক টুইটে জানিয়েছেন, স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (২২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে মার্কিন কংগ্রেসে ভাষণ দেবেন জেলেনস্কি।

টুইটে পেলোসি আরও লিখেছেন, ‘প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কির সাহসী, দেশপ্রেমিক ও অদম্য নেতৃত্ব স্বাধীনতার লড়াইয়ের প্রথম সারিতে যোগ দেওয়ার জন্য কেবল ইউক্রেনের জনগণকে নয়, বিশ্বকে সমবেত করেছে। আমরা তার অনুপ্রেরণা শোনার জন্য উন্মুখ।’

এদিকে, জেলেনস্কির রাজনৈতিক উপদেষ্টা মাইখাইলো পোডোলিয়াক জানিয়েছেন, জেলেনস্কির এই সফর দুই দেশের মধ্যে উচ্চমাত্রার আস্থার প্রতীক। সেই সঙ্গে এই সফর ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টকে কিয়েভের জন্য কী পরিমাণ অস্ত্র প্রয়োজন তা ব্যাখ্যা করার সুযোগ দিয়েছে।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারিতে যুদ্ধের শুরুর পর জেলেনস্কি রাজধানী কিয়েভে বাঙ্কারে থাকতেন। সেখানে থেকে প্রায়ই জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দিতেন। এছাড়া টেলিফোন এবং ভিডিওকলের মাধ্যমে কিয়েভের অফিস থেকে বিশ্ব নেতাদের সঙ্গে প্রায়ই কথা বলেন। কিছুদিন আগেও তিনি যুদ্ধের কয়েকটি সম্মুখ অঞ্চল পরিদর্শন করেছেন, যার ছবি ইতোমধ্যেই সংবাদমাধ্যমে এসেছে। এরমধ্যে গত মঙ্গলবার তিনি পূর্ব ইউক্রেনের দোনেৎস্ক অঞ্চলের ফ্রন্টলাইন শহর বাখমুত পরিদর্শন করেন। তবে যুদ্ধ শুরুর পর এই প্রথম ইউক্রেনের বাইরে যাচ্ছেন জেলেনস্কি।

সর্বশেষ