বঙ্গবন্ধুর অপরাজেয় আদর্শ টিকে আছে প্রতিটি বাঙালির হৃদয়ে: ড.কলিমউল্লাহ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০২ তম জন্মোৎসব উপলক্ষ্যে জানিপপ কর্তৃক আয়োজিত জুম ওয়েবিনারে এক বিশেষ সেমিনারের ৫০৪তম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।
জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন সিনিয়র আইনজীবী এবং নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল এর পাবলিক প্রসিকিউটার এ্যাডভোকেট আব্দুল বারী এবং গেস্ট অব অনার হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, ইউএন ডিজএ্যাবিলিটি রাইটস চ্যাম্পিয়ন ও অনারারি প্রফেসর আবদুস সাত্তার দুলাল, রংপুর মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আর্জিনা খানম ও সিনিয়র সাংবাদিক মোঃ হুমায়ুন কবির।
সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, শিক্ষা ক্যাডারের সহযোগী অধ্যাপক ও গবেষক আবু সালেক খান বঙ্গবন্ধু কমিশনের আন্তর্জাতিক প্রচার সেলের কার্যকরী সদস্য প্রকৌশলী আশরাফুল আলম তমাল ও রাজশাহী থেকে ডা. মাহবুবুল হক।
সভায় মুখ্য আলোচক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন,গোপালগঞ্জস্থ বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে পিএইচডি গবেষণারত প্রশান্ত কুমার সরকার।

সভাপতির বক্তৃতায় ড.কলিমউল্লাহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন,বঙ্গবন্ধু নেই কিন্তু তাঁর অপরাজেয় আদর্শ টিকে আছে প্রতিটি বাঙালির হৃদয়ে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিনিয়র আইনজীবী আব্দুল বারী বলেন, বঙ্গবন্ধু এবং বাংলাদেশ এক এবং অভিন্ন। বঙ্গবন্ধু ছাড়া বাংলাদেশের ইতিহাস লেখা যাবে না।
আবদুস সাত্তার দুলাল বলেন,কোটি মানুষের ত্যাগে রচিত হয়েছে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের ইতিহাস। এই ইতিহাস আমাদের জীবনে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তাৎপর্য বহন করে। যার নেতৃত্ব দিয়েছেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। বঙ্গবন্ধু মানুষকে মনে প্রাণে ভালবাসতেন। তাঁর এই গুণ বর্তমান রাজনীতিবিদদের মধ্যে দেখা যায় না।
গবেষক প্রশান্ত কুমার সরকার বলেন, বঙ্গবন্ধু কখনোই কাউকে ছোট মনে করতেন না। কাউকে কখনোই তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য বা হেয় প্রতিপন্ন করতেন না।

সাংবাদিক হুমায়ুন কবীর বলেন, দল মত নির্বিশেষে বঙ্গবন্ধুকে ঐক্যের প্রতীক হিসেবে মেনে নিয়ে জাতীয় ঐক্যের ভিত্তি রচনা করতে হবে।
আর্জিনা খানম বলেন,আমাদের বিজয় দিনে জাতির পিতাকে স্মরণ করতে হবে, তাঁর জন্য দোয়া করতে হবে যেন তাঁর আত্মা শান্তিতে থাকে চিরকাল।

প্রকৌশলী আশরাফুল আলম তমাল বলেন, বঙ্গবন্ধু জনগণকে ক্ষমতায়িত করতে চেয়েছিলেন। তিনি মনে প্রাণে বিশ্বাস করতেন জনগণই সকল ক্ষমতার উৎস।

সেমিনারটি সঞ্চালনা করেন বঙ্গবন্ধু কমিশনের আন্তর্জাতিক মিডিয়া সেল এর কার্যকরী সদস্য ও আমেরিকার মিলেনিয়াম টিভি”র কান্ট্রি ডিরেক্টর এবং ডেইলি প্রেসওয়াচ সম্পাদক ড. দিপু সিদ্দিকী।
সেমিনারে অন্যান্যের মধ্যে সংযুক্ত ছিলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত প্রকৌশলী শাফিউল বাশার, রাজশাহী থেকে ডা. মাহবুবুল হক ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে ডা. বায়েজিদা ফারজানা।

সর্বশেষ