বঙ্গবন্ধু ছিলেন প্রখর দৃষ্টি সম্পন্ন রাজনীতিবিদ: ড.কলিমউল্লাহ

. জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০২ তম জন্মোৎসব উপলক্ষ্যে জানিপপ কর্তৃক আয়োজিত জুম ওয়েবিনারে এক বিশেষ সেমিনারের ৪৮৫তম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।
জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, সিনিয়র সাংবাদিক মোঃ হুমায়ুন কবির এবং গেস্ট অব অনার হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, রংপুর মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আর্জিনা খানম ও শিল্প উদ্যোক্তা তাসলিমা ফেরদৌস।
সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন ইন্টারন্যাশনাল রবীন্দ্র রিসার্চ ইনস্টিটিউটের পরিচালক ও সহযোগী অধ্যাপক ফারহানা আকতার, কুমিল্লার লাকসাম থেকে প্রভাষক মোঃ কামাল উদ্দিন, মালয়েশিয়া থেকে পিএইচডি গবেষক কাজী ফারজানা ইয়াসমিন ও নীলফামারীর জলঢাকা থেকে পিএইচডি গবেষক ফাতেমা তুজ জোহরা ।
সভায় মুখ্য আলোচক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন গোপালগঞ্জস্হ বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পিএইচডি গবেষণারত প্রশান্ত কুমার সরকার ।

সভাপতির বক্তৃতায় ড.কলিমউল্লাহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন প্রখর দৃষ্টি সম্পন্ন রাজনীতিবিদ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিনিয়র সাংবাদিক হুমায়ুন কবির বলেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন একজন অতিমানবিক হৃদয়ের অধিকারী।
প্রশান্ত কুমার সরকার বলেন, বঙ্গবন্ধু উন্নত বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশকে কাঙ্খিত গন্তব্যে পৌঁছে দেয়ার স্বপ্নে বিভোর ছিলেন।

আর্জিনা খানম বলেন,রাতারাতি বিত্তশালী হওয়ার মরণ নেশা যেন পুরো সমাজটাকে গ্রাস করে ফেলছে। এই অবস্থা থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে।
ফারহানা আকতার বলেন, সুশাসন এবং মানুষের মৌলিক অধিকারের সুরক্ষা দিতে হবে।
ফাতেমা তুজ জোহরা বলেন, গুণগতমান সম্পন্ন শিক্ষা ব্যবস্থা গড়ে তুলতে হবে।
সভায় বক্তারা বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদক্ষ নেতৃত্বে আজ আমরা বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে সক্ষম হয়েছি। সমগ্র এশিয়ার মধ্যে আমরা তৃতীয় ও বিশ্বে পঞ্চম দ্রুতবর্ধনশীল অর্থনৈতিক দেশ।

সেমিনারটি সঞ্চালনা করেন আমেরিকার মিলেনিয়াম টিভির কান্ট্রি ডিরেক্টর ও রয়্যাল ইউনিভার্সিটি অব ঢাকা’র সহযোগী অধ্যাপক,বিভাগীয় প্রধান ও ডেইলি প্রেসওয়াচ সম্পাদক ড. দিপু সিদ্দিকী।
সেমিনারে অন্যান্যের মধ্যে সংযুক্ত ছিলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত প্রকৌশলী শাফিউল বাশার, রাজশাহী থেকে ডা.মনোয়ার ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে ডা.বায়েজিদা ফারজানা।

সর্বশেষ