আর্জেন্টিনা বনাম সৌদি আরব! কি বলছে বিগত ম্যাচ পরিসংখান?

আকাশ দাশ/ক্রীড়া প্রতিবেদকঃ
সহজ প্রতিপক্ষ! কথাটা যদিও দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনারের সাথে বেশ ভালোভাবে যায়। তবে সৌদি আরবকে তুলনামূলক সহজ প্রতিপক্ষ মানতে নারাজ থাকতে হবে ফূটবল বিশ্বকে। অচেনা কন্ডিশনে চেনা প্রতিপক্ষকে নিয়ে তাইতো আরো বেশি কাজ করতে হবে মেসি-ডি মারিয়াদের। গোলপোস্ট থেকে আক্রমণভাগ সব দিক দিয়ে এগিয়ে থাকলেও আর্জেন্টিনারের জন্য সৌদি আরব ভয়ঙ্কর হতে পারে বিগত ম্যাচ পরিসংখ্যান বিবেচনায়….

৬ জুলাই ১৯৮৮ আর্জেন্টিনা ২-২ সৌদি আরব

প্রথমবারের মতো মুখোমুখি হয়েছিলো দুই দল। তবে প্রথম ম্যাচেই দুর্দান্ত ছিলেন সৌদি আরব। তখনকার বিশ্বচ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনারের বিপক্ষে ২-২ গোলে ড্র করে নিজেদের বিশ্ব আসরে আসার প্রমানটা বেশ ভালোভাবে দিয়েছিলেন মধ্যপ্রাচ্যের দেশটি। প্রথমে দুই গোল দিয়ে আর্জেন্টিনা এগিয়ে গেলেও শেষে দুই গোল দিয়ে ম্যাচ ড্র করে স‍ৌদি আরব।

১৬ জুলাই ১৯৮৮….আর্জেন্টিনা ২-০ সৌদি আরব

একই টুর্নামেন্টে আবারো মুখোমুখি সৌদি আরব এবং আর্জেন্টিনা। তবে এবার কাঙ্ক্ষিত জয়ের দেখা পেয়ে মাঠ ছাড়েন আর্জেন্টিনা। স‍ৌদি আরবের জালে সেইবার ২-০ ব্যবধানে জিতে তারা।

২০ অক্টোবর ১৯৯২ আর্জেন্টিনা ৩-১ সৌদি আরব

ফিফা কনফাডেরেশন কাপে সেইবার সৌদি আরবের বিপক্ষে মাঠে নেমেছিলো আর্জেন্টিনা। ম্যাচের পুরোটা সময় নিজেদের কাছে বল রাখা আর্জেন্টাইনরা সেইবার জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ৩-১ ব্যবধানে।

১৪ নভেম্বর ২০১২ আর্জেন্টিনা ০-০ সৌদি আরব

১৯৯২ সালের পর পুণরায় আবারো দুইদল মাঠে নেমেছিলো প্রায় ২০ বছর পর। নতুন দল নতুন অভিজ্ঞতা নিয়ে সেইবার আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে মাঠে নেমেছিলো আর্জেন্টিনা আর সৌদি আরব। শক্তিমত্তার বিচারে সেই ম্যাচে আর্জেন্টিনা অনেক এগিয়ে থাকলেও সৌদি গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে বল জালে জড়াতে পারেনি কেউ। ফলে গোলশূন্য ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় দুইদলকে।

দশ বছর পর আবারো মুখোমুখি হচ্ছে দুইদল। তবে ফিফা বিশ্বকাপের মতো বিশ্ব আসরে প্রথমবারের মতো মাঠে নামছে দুইদল। সম্প্রতি পারফরম্যান্স কিংবা র‍্যাঙ্কিং বিবেচনায় আর্জেন্টিনা এগিয়ে। তাছাড়া মধ্যেপ্রাচ্যের দলটির বিপক্ষে চার ম্যাচের দুই জয় ওদের জোগাবে আত্মবিশ্বাস।বিগত পারফরম্যান্স বিচারে এগিয়ে থাকলেও চেনা কন্ডিশনে ভয়ঙ্কর হতে পারে সৌদি আরবের ফুটবলাররা? ওরা ও ঘটিয়ে দিতে চায় বড় কোন অঘটন।

সর্বশেষ