ভৈরবে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় নারীসহ আহত ৫

এম. আর ওয়াসিম, ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ হালিম,বার্তাসম্পাদক \ ভৈরবে মিরারচরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে কামাল মিয়ার বাড়িতে প্রতিপক্ষের হামলায় নারীসহ আহত হয়েছে ৫ জন । শুধু তাই নয় বাড়ির আঙিনায় লাগানো ছোট ছোট ৩০টি কাঠাঁল গাছের চারা কেটে বাড়িতে বনের ( খড়ের ) গাদায় আগুন ধরিয়ে দেয়ার অভিযোগ উঠছে দ্বিন ইসলাম ও তার অনুসারীদের বিরুদ্ধে ।

স্থানীয় এলাকাবাসি ও কামাল মিয়া জানান তার দাদির খরিদা ও জোতের ১২ শতাংশ ভ্থমি তারা প্রায় ৭০ বছর ধরে ভোগ দখল করে আসছে । কিন্ত গত কয়েক মাস আগে তাদের প্রতিবেশী দ্বীন ইসলাম দাবী করে উক্ত ভ্থমিতে তার জমি আছে । এ নিয়ে এলাকায় বিগত কয়েক মাস পূর্বে এলাকায় শালিসি বৈঠক হয় । বৈঠকে ভুমির মালিকানা হিসেবে আমাদের পক্ষে রায় আসে । কিন্ত রায় অমান্য করে দ্বিন ইসলাম মিয়া সোমবার সকালে লোকজন নিয়ে আমাদের বাড়িতে হামলা চালিয়ে আমাদেরকে মারধোর কওে গুরুতর আহত করে । তাদের হামলায় মর্জিনা বেগম,শাহানা বেগম ,আমির মিয়াসহ ৫ জন আহত হয় । শুধু হামলা করেই ক্ষান্ত হয়নি তারা আমাদের বাড়ির আঙিনায় লাগানো ছোট ছোট ৩০টি কাঠাঁল গাছের চারা কেটে দিয়ে বাড়িতে রাখা বনের ( খড়ের ) গাদায় আগুন ধরিয়ে দেয় । তাছাড়া আমাদেরকে জোর পূর্বক বাড়ি থেকে বের করে দিয়ে হত্যার হুমকি –ধামকি দিচ্ছে । তাদের ভয়ে আমরা বাড়ি ছাড়া । এ বিষয়ে কালিকা প্রসাদ ইউপি মেম্বার হামিদ মিয়া জানান, শোনেছি কামাল মিয়ার বাড়িতে হামলা ,মারধোর ও আগুন ও গাছের চারা কেটে ফেলেছে । তবে জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে একাধিকবার সালিশী বৈটক হয়েছে । পূর্ণাঙ্গ রায়ের দিন আমি বৈঠকে ছিলাম না ।

এ বিষয়ে বাড়ির আঙিনায় লাগানো ছোট ছোট ৩০টি কাঠাঁল গাছের চারা কেটে বাড়িতে বনের ( খড়ের ) গাদায় আগুন ধরিয়ে দেয়া ও মারধোরের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন দ্বিন ইসলাম মিয়া । তিনি দাবী করেন কামালের ভাই ও বংশের লোকজনের কাছ থেকে ক্রয় করা জমি তিনি বোঝে পাচ্ছেন না ।এ ঘটনায় এলাকায় একাধিকবার শালিসী বৈঠক হয়েছে ।

সর্বশেষ