উত্তরখান থানা পুলিশ কর্তৃক ৬০০পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার-১

এম আর ওয়াসিম ভৈরব, (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে প্রাইভেটকার থেকে ২৪৬ বোতল বিদেশি মদসহ দুজনকে আটক করেছে পুলিশ।
আটকরা হলেন, প্রাইভেটকার চালক সিলেটের জকিগঞ্জ থানার ইয়াকুব আলীর ছেলে মাসুম আহমেদ (৩০), গাড়ির হেলপার একই এলাকার শামসুর রহমানের ছেলে শরীফ মিয়া (২৮)।
বৃহস্পতিবার ( গত নভেম্বর) দুপুর আড়াইটার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের থানা সংলগ্ন এলাকায় ভৈরব থানার পরিদর্শক অপারেশন কায়সার আহমেদ এর নেতৃত্বে সঙ্গীয় সেকেন্ড অফিসার এস আই আশরাফুল আলম ও এসআই মাহবুবুল আলম ও এসআই মেহেদী হাসান বাপ্পী কে নিয়ে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করেন।
আটককৃত প্রাইভেটকার চালক মাসুম আহমেদ ঘটনাস্থলে বলেন, উক্ত ভারতীয় মদ ভৈরব পৌর শহরের লক্ষীপুর এলাকার জান্নাত রেস্টুরেন্ট এন্ড রিসোর্টে নিয়ে যাচ্ছিলো বলে জানান।

তাছাড়া তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে যুগোল নামে একজনের সাথে এই নাম্বারে ০১৭৯২-২১৭৯৮৮ এবং ০১৭২২-৭০১৬১৮ কথা বলেই এসেছে এবং তারা আটকৃত মাসুম কে মোবাইল ফোনে বলেন, জান্নাত রেস্টুরেন্টে উক্ত আটকৃত ভারতীয় মদ নিয়ে যাওয়ার জন্য।
অভিযানের ১০ মিনিট পরে ঘটনাস্থলে আসেন জান্নাত রেস্টুরেন্ট এন্ড রিসোর্টের কর্তব্যরত কর্মচারী সালেহ আহমেদ পরে তিনি ঘটনাস্থলে এসে পুলিশের অভিযানে উদ্ধার হওয়া মদের ভিডিও করতে চাইলে তাকে পুলিশ বাদা দেয়। এসময় কর্তব্যরত স্থানীয় সাংবাদিকদের নজরে জান্নাত রেস্টুরেন্টের ম্যানেজার সালেহ আসায় সন্দেহ তৈরি হয়। পরে সাংবাদিকরা তাকে ঘটনাস্থলে আসা নিয়ে প্রশ্ন করলে তিনি দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।
ভৈরব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি তাদন্ত) মো.শাহ আলম মোল্লা বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পৌর শহরের নাজমুল হাসান পাপন পার্কের সামনে অভিযান চালিয়ে একটি প্রাইভেটকার আটক করা হয়। পরে প্রাইভেটকারটি তল্লাশি করে পাঁচটি ব্যাগে থাকা মোট ২৪৬ বোতল বিভিন্ন বিদেশি মদ উদ্ধার করা হয়। যার আনুমানিক দাম ১০ লাখ টাকা। এসময় গাড়িতে থাকা দুজনকে আটক করা হয়েছে। একই সঙ্গে প্রাইভেটকারটিও জব্দ করা হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, এই চক্রটি সিলেট সীমান্ত এলাকা থেকে বিদেশি মদ সংগ্রহ করে রাজধানীতে নিয়ে যাবার সময়ে আটক করা হয়েছে। এই বিষয়ে আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

সর্বশেষ